এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অমিত শাহের বঙ্গ সফরের মাঝেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পোস্টার, ছড়াচ্ছে চাঞ্চল্য !

অমিত শাহের বঙ্গ সফরের মাঝেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পোস্টার, ছড়াচ্ছে চাঞ্চল্য !



প্রায় অনেকদিন হল বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। কিন্তু দলের সঙ্গে ঠিকমতো বনিবনা না হওয়ার কারণে এখনও পর্যন্ত বিজেপিতে সক্রিয় নন প্রাক্তন মন্ত্রী তথা কলকাতা পৌরসভার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। তবে সম্প্রতি বেশ কিছুদিন আগে দক্ষিণ কলকাতার বিভিন্ন এলাকা জুড়ে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার আবেদন জানিয়ে বিজেপির প্রতীক দিয়ে কিছু ব্যানার ছাপানো হয়। যার ফলে জল্পনা তৈরি হয়, হয়ত বা বিজেপি এবার পৌরসভা নির্বাচনে শোভন চট্টোপাধ্যায়কে মুখ করে এগোতে চাইছে।

কিন্তু এখনও পর্যন্ত সেভাবে সেরকম কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি। আর এরই মাঝে যখন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্যে আসছেন, ঠিক তার আগেই শনিবার রাত থেকে কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় ব্যানার, পোস্টারে ভেসে উঠলো শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মুখ। যেখানে অমিত শাহকে স্বাগত জানিয়ে সেই ব্যানারগুলো লেখা রয়েছে, “শোভনদা তোমাকে পেয়ে আমরা সার্থক।” আর এখানেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, তাহলে কি অমিত শাহের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য শোভন চট্টোপাধ্যায়কে মুখ করতে বিজেপির একাংশ তৎপর হয়ে এই ব্যানার লাগিয়েছেন! ইতিমধ্যেই কে বা কারা এই ব্যানার লাগালো, তা নিয়ে তীব্র জল্পনা তৈরি হয়েছে বিজেপির অন্দরে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, কলকাতার নাগরিকদের নাম দেওয়া সেই পোস্টারে বিজেপির প্রতীকের ছবি রয়েছে। এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমার জানা নেই। দলের তরফে এই ব্যানার দেওয়া হয়নি। আমিও সংবাদমাধ্যমেই দেখলাম। তাতেই জানলাম। হতে পারে আমাদের কর্মীরা, সাধারণ নাগরিকরা করেছেন। শোভনদাকে সবাই চায়। পার্টি থেকে এটা করা হয়নি। তবে ভালই তো। শোভনদা সক্রিয় হলে ফিরহাদ হাকিমকে সমস্যায় পড়তে হবে।” তবে দিলীপ ঘোষ এই ব্যাপারে কিছু জানেন না বলে মন্তব্য করলেও, এককথায় পরিষ্কার যে, বিজেপির একাংশ এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়ের অনুগামীরাই এই পোস্টার লাগিয়েছেন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর তিনি সক্রিয়ভাবে রাজনীতিতে নেমে তৃণমূলকে কুপোকাত করবেন বলে মনে করা হয়েছিল। কিন্তু যেভাবে বিজেপি রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মতানৈক্য তৈরি হয়েছিল, তাতে শেষপর্যন্ত ঘরে বসে যেতে দেখা দিয়েছিল তাঁকে। তাই এবার পৌরসভা নির্বাচনের আগে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের অনুগামীরা পোস্টার, ব্যানার লাগিয়ে অমিত শাহের সফরের আগে তার নজরে শোভন চট্টোপাধ্যায়কে আনতে চাইলেন বলেই মনে করছে একাংশ। এখন শেষ পর্যন্ত গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!