এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > লক্ষ্য ২০১৯ লোকসভা – বঙ্গ বিজেপির জন্য নিশানা ঠিক করে কঠিন দাওয়ায় অমিত শাহের

লক্ষ্য ২০১৯ লোকসভা – বঙ্গ বিজেপির জন্য নিশানা ঠিক করে কঠিন দাওয়ায় অমিত শাহের



‘হানিমুন পিরিয়ড’ আপাতত শেষ মুকুল রায়-দিলীপ ঘোষদের। ২০১৯ এ কেন্দ্রে আবারো ক্ষমতায় ফিরতে মরিয়া নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি। আর তা করতে গেলে এবারে যে বাংলায় সর্বকালীন ভালো ফল করতেই হবে তা জলের মত পরিষ্কার। আর তাই লোকসভা ভোটকে লক্ষ্য করে পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকেই একগুচ্ছ ‘কঠিন টার্গেট’ পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বঙ্গ-বিজেপির নেতাদের কাছে। সূত্রের খবর, সেই টার্গেট পূরণ না হলে কঠিন ‘শাস্তির খাঁড়া’ নেমে আসতে পারে, যার মধ্যে আছে পদ হারানোর মত ঘোষণাও। বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ত্বের মত, ‘শাসকদলের সন্ত্রাস’ নিয়ে অনেক কথা হয়েছে, এবার প্রমান করতে বঙ্গে সত্যিই বাড়ছে বিজেপির সংগঠন এবং তার পরিপ্রেক্ষিতে হচ্ছে ভালো ফল। লোকসভা ভোটার টার্গেট কি?

১. রাজ্যের ৪২ টি আসনেই প্রথম দুয়ের মধ্যে থাকতে হবে
২. অন্তত ২০ টি আসনে জয়লাভ করতে হবে
৩. সেই ২০ টি আসন বেছে নিয়ে এখন থেকেই লোকসভার প্রস্তুতি শুরু করে দিতে হবে

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

আর লোকসভায় সেই টার্গেট পূরণ করতে হলে, আপাতত ‘সেমি ফাইনাল’ পঞ্চায়েত নির্বাচনে করে দেখতে হবে –
১. সব আসনে প্রার্থী দেওয়া
২. অন্তত ৪ টি জেলা পরিষদ দখল
৩. পঞ্চায়েত সমিতিতে অন্তত ৩০% আসনে জয়
৪. গ্রাম পঞ্চায়েতে অন্তত ৩৫-৪০% আসনে জয়

বিজেপি সূত্রে জানা গেছে, এই নির্দেশিকা হাতে আসার পর বঙ্গ-নেতৃত্ত্বের তরফে জানানো হয়েছে, শাসকদলের লাগামহীন সন্ত্রাসের ফলে ইতিমধ্যেই সব আসনে প্রার্থী দেওয়া যায় নি। তার উপরে যেখানে যেখানে প্রার্থী দেওয়া গিয়েছিল, সেখানেও শাসকদলের অত্যাচারে প্রার্থীরা মনোনয়ন তুলে নিতে বাধ্য হয়েছেন। তাই পঞ্চায়েতে যে লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছে, তা পূরণ করা একপ্রকার অসম্ভব। কেন্দ্রীয় নেতৃত্ত্ব সেকথা মেনে নিয়ে পঞ্চায়েতের লক্ষ্যমন্ত্র কিছুটা কমাতে রাজি হলেও, বাকি ক্ষেত্রে কোনো সমঝোতার প্রশ্ন নেই বলে জানিয়ে দিয়েছে। এমনকি এই লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হলে, সরে যেতে হবে দায়িত্ত্ব-পদ থেকে সেকথাও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বঙ্গ-নেতৃত্ত্বকে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!