এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমিত শাহর তারাপীঠ সফর নিয়ে প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রাজ্য বিজেপির

অমিত শাহর তারাপীঠ সফর নিয়ে প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রাজ্য বিজেপির



নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী আজই দুদিন সফরের জন্যে বঙ্গের মাটিতে পা রাখবেন সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। লোকসভা ভোটের আগে রাজ্য বিজেপির সঙ্গে দলের রণনীতি নিয়ে একাধিক বৈঠক করার পরিকল্পনা তাঁর। বেশ কয়েকদিন ধরেই রাজ্য বিজেপিশিবিরে সক্রিয়তা তুঙ্গে রয়েছে জাতীয় বিজেপি সভাপতিকে বঙ্গে স্বাগত করার জন্যে। তবে রাজ্য সরকার বোধহয় বিরোধীশিবিরের সর্ব ভারতীয় নেতৃত্বের হঠাৎ করে বঙ্গে উড়ে আসাতে সন্তুষ্ট নন্। সেরকমই প্রমাণ পাওয়া গেলো অমিত শাহের তারাপীঠ সফরের আগে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

প্রসঙ্গত, বাংলায় এসেই তারাপীঠে পুজো দিতে চেয়েছেন শাহ। আজ রাতে বঙ্গে এসে কাল সকালেই হেলিকপ্টারে রামপুরহাট আসবেন তিনি তারপর যাবেন তারাপীঠ দর্শনে। তাঁর এই পরিকল্পনা জানানো হয়েছিলো প্রশাসনকে। কিন্তু গতকাল বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব রামপুরহাট গিয়ে দেখেন যে সেখানে এখনো হেলিকপ্টার নামার জন্য হেলিপ্যাডই তৈরি নেই। এ প্রসঙ্গে রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় জানান যে, হেলিপ্যাড তৈরির জন্য জরুরি কাগজপত্র ২২ জুন প্রশাসনের কাছে জমা করেছিলেন তাঁরা। কিন্তু প্রশাসনের মধ্যে এ নিয়ে কোনো সক্রিয়তাই দেখা যাচ্ছে না। তিনি অভিযোগের স্বর চড়া করে আরো জানান যে বঙ্গে নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশেই এমনটা হচ্ছে। আসলে তৃণমূলনেত্রী চাইছেনই না অমিত শাহ বঙ্গে আসুন। তাই তাঁর কথা মতোই প্রশাসনও এমন নোংরা রাজনীতিতে নেমেছে।

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

শুধু এটুকুই নয়,এর পাশাপাশি তিনি আরো জানান যে, তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা রাস্তায় রাস্তায় উন্নয়নের প্রতীক স্বরূপ দাঁড়িয়ে রয়েছে। গেরুয়া ঝান্ডা লাগাতেই দিচ্ছে না। অন্যদিকে একইভাবে রাজ্যসরকার এবং প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগে সরব হন বিজেপির জেলা সভাপতি রামকৃষ্ণ রায়ও। তিনি জানান যে, রাজ্য বিজেপিশিবির কোনোদিনই প্রশাসনের তরফ থেকে কোনো সাহায্য পায়নি। সেরকম আজও পাচ্ছে না। কোনো হেলদোল নেই তাঁদের বিজেপির কাজে। ওদিকে,মহাকুমাশাসক তাঁদের জানিয়েছেন যে তিনি নির্দেশ দিয়ে দিয়েছেন কাজ শুরু করতে কিন্তু PWD এর ইঞ্জিনিয়ার আবার বলছেন যে তিনি নাকি কোনো উপরিমহলের নির্দেশই পাননি। উল্লেখ্য,এখনো হেলিপ্যাড তৈরি না হলেও বিজেপি ইতিমধ্যেই তারাপীঠ চত্বরে দলীয় পতাকা,ফেস্টুন এবং কাটআউট লাগাতে শুরু করে দিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
Facebook Friends
error: Content is protected !!