এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমিত শাহের সভায় নিরাপত্তার বিশেষ ব্যবস্থায় বঙ্গ-বিজেপি – অনুমতি মিলবে কি?

অমিত শাহের সভায় নিরাপত্তার বিশেষ ব্যবস্থায় বঙ্গ-বিজেপি – অনুমতি মিলবে কি?



চলতি মাসের ১১ তারিখ বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের সভা রয়েছে মহানগরীতে। এদিনের সভাকে কেন্দ্র করে রাজ্য বিজেপি নিরাপত্তা ক্ষেত্রে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। জানা যাচ্ছে ১১ই অগষ্ট অর্থাৎ শনিবারের সভাকে নিরাপত্তার ঘেরাটোপে মোড়া রাখতে সভাস্থলে ড্রোন ও ১৮টি এলসিডি টিভির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

এদিনের সভা অনুষ্ঠিত হবে মেয়ো রোডে। জানা গিয়েছে গেরুয়া শিবিরের রাজ্য যুব মোর্চার সভায় অংশ গ্রহণ করার জন্যে ঐদিন আনুমানিক ৩ লক্ষ মানুষের সমাবেশ হবে। এমনটাই যৌথভাবে দাবি করছে রাজ্য বিজেপি ও যুব মোর্চা। এদিনের সভায় রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত মানুষের সুযোগ সুবিধার কথা চিন্তা করে ১৮টি এলসিডি স্ক্রিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে যাতে অমিত শাহের বক্তব্য শুনতে কোনো রকম অসুবিধা না হয়। এই ব্যবস্থা গ্রহণ করার ফলে মেয়ো রোড সংলগ্ন পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলি থেকেও এই সভার ওপরে নজর রাখা যাবে। তবে এবার সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে একটু অন্যভাবে মঞ্চ বাঁধা হচ্ছে।

জানা যাচ্ছে মঞ্চ তৈরী হবে পার্ক স্ট্রিট ফ্লাইওভারের দিকে পিছন করে। এর ফলে ভিড় শহরের দিকে না ঢুকে, গঙ্গার দিকে সরবে। মানুষ বিপদে পড়বেন না। সভায় আগত মানুষদের সাহায্য করার জন্যে ৫০০ জন স্বেচ্ছাসেবীর বন্দোবস্ত করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। এই স্বেচ্ছাসেবী সহ বিজেপি ও যুব মোর্চার কয়েকজন নেতার হাতে ওয়াকিটকি থাকবে। এই জন্যে মোট ৫০টি ওয়াকিটকির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এছাড়াও ৪টি অস্থায়ী স্বাস্থ্যশিবির ও ৮টি অ্যাম্বুল্যান্সের বন্দোবস্ত রাখা হয়েছে। সব মিলিয়ে বিজেপি সভাপতির জনসভাতে আয়োজনের কোনও ত্রুটি রাখতে চায়না রাজ্য বিজেপি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!