এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অমানবিক! করোনা আক্রান্ত মহিলা হাসপাতাল কর্মীর কাছে ধর্ষিত হয়ে মারা গেলেন পরের দিন!

অমানবিক! করোনা আক্রান্ত মহিলা হাসপাতাল কর্মীর কাছে ধর্ষিত হয়ে মারা গেলেন পরের দিন!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – ভয়াবহ মারন ভাইরাস করোনা মহামারী বহু অমানবিক দৃশ্যের সাক্ষী হয়ে থাকল। কখনও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার জন্য পাশের বাড়ির চৌকাট মাড়ানো দায় হয়ে দাঁড়িয়েছে, আবার কখনও বা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হওয়ার কারণে বাইরে বের করা যাচ্ছে না মরদেহ। বিভিন্ন রকম ঘটনা খবরের শিরোনামে উঠে আসতে দেখা যাচ্ছে। যা কার্যত স্পর্শকাতর বলেই মনে করছেন সকলে। কিন্তু এর মাঝেই এবার এক করোনা আক্রান্তকে নিয়ে নৃশংস ঘটনার সাক্ষী থাকল গোটা দেশবাসী।

জানা গেছে, ভোপালে এক করোনা আক্রান্ত মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে হাসপাতালের এক পুরুষ নার্সের বিরুদ্ধে। যে ঘটনার 24 ঘন্টার মধ্যেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন সেই মহিলা। আর ভয়াবহ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত একজন মহিলাকে যেভাবে ধর্ষণ করার অভিযুক্ত অভিযুক্ত হলেন একজন পুরুষ নার্স, তাতে আশঙ্কা ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে এমনিতেই হাসপাতাল পরিষেবায় খামতি চোখে পড়ছে। তার মধ্যে একজন পুরুষ নার্সের এই ধরনের অমানবিক আচরণ নানা প্রশ্ন তুলে দিল।

জানা গেছে, 43 বছরের এক মহিলা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভোপাল মেমোরিয়াল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। কিন্তু গত 6 তারিখে তাকে সেই হাসপাতালে এক নার্স ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ। পরবর্তীতে তাঁর অবস্থার ক্রমশ অবনতি হতে শুরু করায় তাকে ভেন্টিলেশনে নিয়ে যাওয়া হয়। আর সেই ঘটনার 24 ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু হয় সেই মহিলার। তবে মৃত্যুর আগে তিনি বিবৃতি দিয়েছেন বলে খবর। যেখানে অভিযুক্ত সেই নার্সের কথা তুলে ধরা হয়েছে।

স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘটনার পর থেকেই মানুষের মানবিকতা কোথায় দাঁড়িয়েছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন সকলে। এমনিতেই করোনা মহামারী সকলকে চিন্তায় রেখেছে। হাসপাতাল পরিষেবা নিয়ে নানা মহলে এমনিতেই অভিযোগ উঠছে। তার মধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এক মহিলাকে যেভাবে এক পুরুষ নার্স ধর্ষণ করলেন এবং সেই মহিলার মৃত্যু হল, তা যে যথেষ্ট মর্মস্পর্শী ঘটনা, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

ইতিমধ্যেই এই গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করে দিয়েছে পুলিশ। যেখানে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, অভিযুক্ত সেই পুরুষ নার্সের নাম সন্তোষ। এর আগেও তার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এক মহিলাকে ধর্ষণ করে মৃত্যুমুখে ঠেলে দেওয়ার মারাত্মক অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। হয়ত বা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পরেও সেই মহিলা লড়াই করে বেঁচে যেতেন। কিন্তু যেভাবে হাসপাতালে পুরুষ নার্সের দ্বারা নিগৃহীত হলেন তিনি, তাতে একদিকে করোনা এবং অন্যদিকে শরীরের নির্যাতন তার প্রাণবায়ু কেড়ে নিল।

এদিকে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সাধারণ মানুষদের মনে নানা প্রশ্ন দানা বেঁধেছে। অনেকে বলছেন, মানুষ পরিষেবা পেতে গেলে হাসপাতালে যাবে। কিন্তু সেখানেও যদি এইভাবে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়, তাহলে মানুষ কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে? কেন হাসপাতালে সঠিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেই? এভাবেই কি একদিকে করোনা, অন্যদিকে পাশবিক নির্যাতন সাধারন মানুষ এবং নারীশক্তিকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেবে! ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিতে ভোপালের এই ঘটনা নানা প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!