এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > অল্প সময়ের মধ্যেই দেশে আছড়ে পড়ার আশঙ্কা করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের, কারণ হতে পারে নতুন স্টেন

অল্প সময়ের মধ্যেই দেশে আছড়ে পড়ার আশঙ্কা করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের, কারণ হতে পারে নতুন স্টেন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ অনেকটা স্তিমিত হয়ে পড়েছে। গত ১২ দিন ধরে এক লক্ষের নিচে রয়েছে দৈনিক করোনা সংক্রমণ। কিন্তু এর মধ্যেই করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের সতর্কবার্তা দিচ্ছেন একাধিক বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসকেরা। এইমসের ডিরেক্টর রণদীপ গুলেরিয়া সতর্ক করেছেন যে, আগামী ছ থেকে আট সপ্তাহের মধ্যে দেশে আছড়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের। যার মূল কারণ হতে পারে নতুন স্টেন ডেল্টা প্লাস।

সম্প্রতি, দেশের বিভিন্ন স্থানে আনলক প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ফলে রাস্তায় যানবাহনের ভীড় যেমন বাড়তে শুরু করেছে, তেমনি বাজারে, দোকানে শুরু হয়েছে লোকসমাগম। যা থেকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। এ প্রসঙ্গে রণদীপ গুলেরিয়া জানিয়েছেন যে, আনলক পর্ব শুরু হতেই স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করা শুরু হয়েছে। মানুষের মধ্যে অসচেতনতা দেখা যাচ্ছে। যা দেখে মনে হচ্ছে, করোনার প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউ থেকে দেশবাসী কিছুই শিখতে পারেনি।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আবার জমতে শুরু করেছে ভিড়, বহু মানুষ জড়ো হচ্ছেন নানা স্থানে । এর জন্য আবার সংক্রমণ বাড়বে। আগামী ছ থেকে আট সপ্তাহের মধ্যে আবার সংক্রমণ বাড়তে পারে। তৃতীয় ঢেউ রুখতে মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধি ও দ্রুত টিকাকরণের ওপরে জোর দিয়েছেন তিনি। তৃতীয় ঢেউ ছড়াবার জন্য তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন করোনার ডেল্টা প্লাস প্রজাতিকে নিয়ে।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য মূলত দায়ী ডেল্টা। যা রূপ বদল করে ডেল্টা প্লাস প্রজাতি তৈরি করেছে। বারবার মিউটেশন ঘটাচ্ছে এই ভাইরাস। এখনো পর্যন্ত ডেল্টা প্রজাতির ৬৩ টি জেনোমের সন্ধান পাওয়া গেছে। বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, ডেল্টা প্লাসে মনোক্লোনাল এন্টিবডি ককটেল কাজ নাও করতে পারে। তবে, সম্প্রতি ইউরোপ, আমেরিকায় যে ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে ডেল্টা প্লাস প্রজাতি। ভারতে এখনো তা সেভাবে ছড়ায়নি। তাই এখনই এ বিষয় নিয়ে তেমন একটা সতর্ক করছেন না একাধিক বিশেষজ্ঞ।

তবে, বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ক্রমাগত রূপ বদলাতে পারে এই ভাইরাস। তৈরি করতে পারে নতুন নতুন প্রজাতি। ডেল্টা প্লাস সম্পর্কে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন যে, এর সংক্রমণের হার দেখে তবেই একে নিয়ে আশঙ্কার কথা জানা যাবে। যাদের শরীরে ডেল্টা প্লাস পাওয়া গেছে আগে তাদের পর্যবেক্ষণ করা দরকার। আবার কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, এখনই ডেল্টা প্লাস নিয়ে আতঙ্কিত হবার কোন কারণ নেই।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!