এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আজই কি হবে মহা যোগদান? একেবারে খাঁটি বাঙালির বেশে ব্রিগেড গ্রাউন্ডের উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন মহাগুরু

আজই কি হবে মহা যোগদান? একেবারে খাঁটি বাঙালির বেশে ব্রিগেড গ্রাউন্ডের উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন মহাগুরু



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ দুপুরে কলকাতায় আসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এখন একেবারে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি পর্ব চলছে তাঁর ব্রিগেডকে কেন্দ্র করে। প্রধানমন্ত্রীর ব্যানার, হোর্ডিংয়ে ভরে গেছে শহর। অসংখ্য মানুষ আসছেন সমাবেশ স্থলে। এবার প্রধানমন্ত্রীর ব্রিগেডের উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী।

একেবারে খাঁটি বাঙালির পোশাকে ব্রিগেডের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। জানা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মূল মঞ্চে উপস্থিত থাকতে চলেছেন তিনি। ধুতি-পাঞ্জাবি পরে, চোখে কালো চশমা এঁটে তাঁর বেলগাছিয়ার বাড়ি থেকে সমাবেশের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন অভিনেতা। কিছুক্ষণের মধ্যেই তিনি পৌঁছে যাবেন সমাবেশ স্থলে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অভিনেতার গাড়ি ঘিরে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেন। অভিনেতাকে দেখতে বহু মানুষ বেরিয়ে পড়েছেন মহানগরের রাস্তায়। ভিড় করেছেন অভিনেতা গাড়ির সামনে অনেকে। অভিনেতার বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা তীব্র আকার ধারণ করেছে। এখন দেখা যাক, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আজই চলে কিনা, মহাগুরুর মহাযোগদান পর্ব?

আজ প্রধানমন্ত্রীর বিগ্রেডে থাকতে পারেন বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার সহ আরো বেশ কিছু বিশিষ্ট তারকা। প্রধানমন্ত্রীর বিগ্রেডের কারণে কড়া নিরাপত্তা রয়েছে সমগ্র কলকাতা শহর জুড়ে। এই ব্রিগেডে অংশগ্রহণ করতে চলেছেন বিজেপির একাধিক কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ও রাজ্য নেতৃত্ব। রাজ্য বিজেপির প্রায় সমস্ত স্তরের নেতৃত্ব, বিজেপির লোকসভা, রাজ্যসভার সাংসদ উপস্থিত থাকবেন। উপস্থিত থাকতে পারেন দীনেশ ত্রিবেদী।

এছাড়াও উপস্থিত থাকছেন মুকুল রায়, রাহুল সিনহা, বাবুল সুপ্রিয়, শুভেন্দু অধিকারী, লকেট চ্যাটার্জি, রুপা গাঙ্গুলি, শান্তনু ঠাকুর সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নেতৃত্ব। আজ বিগ্রেড যাবার পথে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ বাঁধে ভাঙড়ে। অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কর্মীরা বিজেপি কর্মীদের ব্রিগেডে যেতে বাধা দিয়েছিলেন, তার পরেই সংঘর্ষ বাধে দু’দলের। এই ঘটনায় তৃণমূল ও বিজেপির মোট ৭ জন কর্মী আহত হয়েছেন। তবে, তৃণমূলের দাবি, তৃণমূল কর্মীরা কোনো বাধা দেয়নি, বিজেপি কর্মীরাই অকস্মাৎ হামলা চালিয়েছে তৃণমূল কর্মীদের ওপর।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!