এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আজ কাঁথিতে শাসকদল তৃণমূলের সভাকে তীব্র কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

আজ কাঁথিতে শাসকদল তৃণমূলের সভাকে তীব্র কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পর, আজ তাঁর এলাকাতেই মিছিল ও সভা করে শক্তি প্রদর্শন করতে চলেছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। আজ কাঁথিতে রয়েছে তৃণমূলের সভা ও মিছিল। এজন্য কাঁথি শহরের বিভিন্ন রাস্তায় ছেয়ে গেছে তৃণমূলের পোস্টার ও ব্যানার।

শুভেন্দু অধিকারী না থাকলেও যে মেদিনীপুরের সভা করা যায় ও জমায়েত করা যায়, এটাই করে দেখাতে চাইছে শাসক দল তৃণমূল। এই সভার মূল উদ্যোক্তা হলেন অখিল গিরি। অন্যদিকে এই সভায় উপস্থিত হতে চলেছেন ফিরহাদ হাকিম, সৌগত রায় প্রমুখরা। তৃণমূলের এই সভাকে প্রবল কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

আজ সকালে প্রাতঃভ্রমনে বেরিয়ে কাঁথিতে তৃণমূলের সভাকে ব্যাপক আক্রমণ চালালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। যেখানে তিনি জানালেন, ” যে সমস্ত জিনিস বিক্রি হয় না, তা চৈত্র সেলে বিক্রির চেষ্টা হয়।” তিনি যোগ করেন, “তৃণমূলর গুদামে যারা পড়েছিল তাদের নিয়ে গিয়ে নানা জায়গায় সভা করছে। ” অন্যদিকে, এ বছরের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের ট্যাব দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে, গতকাল নবান্ন থেকে তিনি জানালেন যে, সম্প্রতি বাজারে যথেষ্ট পরিমাণ ট্যাব নেই। এ কারণে ট্যাব না দিয়ে পরীক্ষার্থীদের একাউন্টে সরাসরি ১০ হাজার টাকা করে দেয়া হবে। যা দিয়ে পরীক্ষার্থীরা নিজেরাই, মোবাইল বা ট্যাব কিনে নিতে পারবে। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের এই অর্থসাহায্য প্রসঙ্গে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানালেন যে, অর্থ সাহায্যের তালিকাতে নেতার ছেলেদের নাম ঢোকান হচ্ছে । আম্ফানের মত এখানেও চলবে দুর্নীতি। এর কাটমানি পৌঁছে যাবে ইলেকশন ফান্ডে।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে গতকাল নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্প্রতি রাজ্যে ১৬ হাজার শিক্ষক ও ১০ হাজারেরও বেশি পুলিশ কর্মী নিয়োগের ঘোষণা করেছেন। এ প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানালেন যে, মরার সময় হরিনাম করা হচ্ছে। তিনি জানালেন যে, ঘোষণা করা হলেও নিয়োগ করা হবে না। অন্যদিকে গতকাল পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া শহরের চা-চক্রের অনুষ্ঠানে যোগদান করেছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। যেখান থেকে তিনি তৃণমূল সরকার ও প্রশান্ত কিশোরকে একহাত নিয়েছিলেন।

তৃণমূল সরকারের দুয়ারে কর্মসূচি কে কটাক্ষ করেছিলেন তিনি। সম্প্রতি সরকারের পক্ষ থেকে এই কর্মসূচিতে বরাদ্দ বৃদ্ধির ঘোষণা করা হয়েছে। তৃণমূল সরকারের এই কর্মসূচিকে কটাক্ষ করেছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এ প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছিলেন যে, সরকারের টাকাতে মোচ্ছব করা হচ্ছে। তিনি অভিযোগ করেছেন তৃণমূল কর্মীদের খাওয়া দাওয়ার জন্যই সমস্ত টাকা ব্যবহার করা হচ্ছে।

আবার গতকাল ভোট কুশলী পিকেকে তীব্রভাবে কটাক্ষ করেছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সম্প্রতি, পিকে তাঁর এক টুইটে জানিয়েছিলেন যে, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির আসন সংখ্যা দুই অঙ্ক পার করতে পারবে না, পারলে তিনি টুইট করা ছেড়ে দেবেন। ভোট কুশলী পিকেকে প্রবল আক্রমণ করে তিনি জানান যে, বিজেপি দুই বা তিন যে অঙ্কই পাক না কেন, চাকরি চলে যাবে প্রশান্ত কিশোরের।

তাই তিনি আগে থেকেই তা গেয়ে রেখেছেন। তিনি টাকা নিয়েছেন, তাই তাঁকে অর্ধচন্দ্র দিয়ে বিদায় করা হবে।দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেছেন যে, বিজেপির নামে কুৎসা প্রচার করছেন প্রশান্ত কিশোর। নেগেটিভ প্রচার করে তিনি বিজেপির চরিত্রহনন করছেন। বিজেপিকে বদনাম করার চেষ্টা করছেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!