এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশকে ‘পথ’ দেখাচ্ছেন জানালেন প্রদেশ সভাপতি অধীর চৌধুরী

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশকে ‘পথ’ দেখাচ্ছেন জানালেন প্রদেশ সভাপতি অধীর চৌধুরী



আজ কলকাতা হাইকোর্টে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে একাধিক মামলার শুনানি ছিল, তার মধ্যে অন্যতম ছিল প্রদেশ কনগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর করা মামলা। সেই মামলার শুনানিতে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অধীরবাবু তীব্র আক্রমন করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেস দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। অধীরবাবু এদিন বলেন, পঞ্চায়েত ভোটকে কার্যত প্রহসনে রূপান্তর করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশকে ‘পথ’ দেখাচ্ছেন কীভাবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ভোট জেতা যায়, এ ঘটনা গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জার। রাজ্যে ৫ কোটি ৮ লক্ষ ভোটার, এরই মধ্যে ভোটের আগে রাজ্যে ৩৪% আসনে জিতে গিয়েছে শাসক দল তৃণমূল। কী করে জিতেছেন? ভোটে না লড়ে গায়ের জোরে, বল্গাহীন সন্ত্রাস করে। ১ কোটি ৮৫ লক্ষ মানুষের ভোটাধিকার হরণ করে নিয়ে এই বিপুল সংখ্যক আসনে জিতেছে তৃণমূল – আজ পর্যন্ত এমন ঘটনা ঘটেনি গণতন্ত্রে, যে ঘটনা ঘটাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

অধীরবাবু এদিন আরো বলেন, এখানে ভোটের আগেই শাসক দলের প্রার্থীরা জয় পেয়ে যাচ্ছেন, তাঁদের হাতে সার্টিফিকেট পর্যন্ত তুলে দেওয়া হচ্ছে! অর্থাত্‍ ‘তা’ না দিয়েই মুরগির ডিম থেকে ছানা হয়ে যাচ্ছে। একটা দল বল্গাহীন সন্ত্রাস করে মনোনয়ন পেশ পর্বেই ২৫% আসনে বিজয়ী হয়ে গেল, তারপর মনোনয়ন প্রত্যাহার পর্বে তা বে়ড়ে দাঁড়াল ৩৪% – এই পরিসংখ্যানই বলে দেবে রাজ্যে কী চলছে! এরপরে তিনি রাজ্য নির্বাচন কমিশনকেও আক্রমন করে বলেন, ভারতীয় সংবিধানে নির্বাচন কমিশনকে স্বশাসিত সংস্থার মর্যাদা দিয়েছে, সেই কমিশন এ রাজ্যে কতটা নখদন্তহীন – তা বুঝিয়ে দিয়েছে। শুধু নখদন্তহীনই নয়, এই নির্বাচন কমিশন অবয়বহীন, কিংকর্তব্যবিমূঢ় – কমিশন একতরফাভাবে শাসক দলকে সুবিধা দিয়ে গিয়েছে। তারই জেরে রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোটের ভবিষ্যত্‍ এখনও অনিশ্চয়তার ঘেরাটোপে পড়ে রয়েছে, সাধারণ মানুষ বিভ্রান্ত আদৌ ভোট হবে কি না, হলে কবে হবে!

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!