এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অধীরের হাতে দলের গুরুদায়িত্ব দিয়ে মাস্টার স্ট্রোক দিলেন সোনিয়া গান্ধী

অধীরের হাতে দলের গুরুদায়িত্ব দিয়ে মাস্টার স্ট্রোক দিলেন সোনিয়া গান্ধী



এবার রাজ্যে প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি তথা বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে সংসদে দলের নেতা হিসেবে নির্বাচিত করে একসাথে অনেকগুলো কাজ করলেন সোনিয়া গান্ধী। অনেকে বলছেন, এ আসলে এক ঢিলে দুই পাখি মারার চেষ্টা।

বস্তুত, লোকসভা ভোটের অনেক আগে থেকেই অধীর রঞ্জন চৌধুরীর বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা তীব্র হয়ে উঠেছিল। তবে তাকেই দলের বিরোধী দলনেতা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে সোনিয়া, রাহুলেরা অধীরের সেই পথকেই আটকে দিলেন। আর বাংলায় যেহেতু কংগ্রেসের অবস্থা খুব একটা ভালো নয়, তাই সেদিক থেকে সেই বাংলা থেকেই নির্বাচিত সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে লোকসভায় দলের নেতা করে সোনিয়া গান্ধী রাজ্যে দলের সংগঠনের ওপরও জোর দেওয়ার বার্তা দিতে চাইলেন।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বস্তুত, গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকে কংগ্রেসের প্রতিনিধি হিসেবে অধীর রঞ্জন চৌধুরীর উপস্থিতির ব্যাপারে জল্পনা ছড়ায়। আর এই বৈঠকেই অধীরবাবুর পিঠ চাপড়ে তাকে যোদ্ধার মর্যাদা দেন প্রধানমন্ত্রী। তখন অনেকেই বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রী অধীর রঞ্জন চৌধুরীর পিঠ চাপড়ানোর পেছনে তাহলে কি বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদের বিজেপি যোগের সম্ভাবনা আরও প্রবল হল! আর এই সমস্ত জল্পনায় জল ঢেলে দিয়ে বাংলার দাপুটে কংগ্রেস নেতা হিসেবে পরিচিত অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে লোকসভার বিরোধী দলনেতার দায়িত্ব দিল কংগ্রেস।

জানা যায়, এতদিন তেমনভাবে বাংলার কোনো কংগ্রেস নেতা কেন্দ্রে গুরুত্ব পেতেন না। ইন্দিরা গান্ধী, রাজীব গান্ধী এবং সোনিয়া গান্ধীর সময় প্রণব মুখোপাধ্যায়, প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সিরা বিশেষ গুরুত্ব পেলেও রাহুল গান্ধীর আমলে সেই প্রবণতা কমে এসেছিল। আর আর এবার সেই রাহুল গান্ধীর সাথেই সুসম্পর্ক থাকা বাংলার কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে লোকসভার বিরোধী দলনেতার পদ দিয়ে এ যেন মাস্টারস্ট্রোক দিল হাত শিবির।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!