এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সভাপতির পদ হারালেন অধীর, মাথায় হাত বামেদের, কারণ জেনে নিন

সভাপতির পদ হারালেন অধীর, মাথায় হাত বামেদের, কারণ জেনে নিন



প্রদেশ সভাপতি বদল হল কংগ্রেসের আর মাথায় হাত পড়ল বামেদের। একদা অহিনকুল সম্পর্কে এক দলের সাথে অন্য দলের যখন মুখ দেখাদেখি বন্ধ ছিল সেই তারাই আজ একে অপরের ওপর নির্ভরশীল। কিন্তু কেন? অধীর চৌধুরীর জায়গায় সৌমেন মিত্র আসায় বামেদের অস্বস্তি কেন?

সূত্রের খবর, রাজ্যে তৃনমূল এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিরোধীতায় প্রধান মুখ ছিল কংগ্রেসের অধীররঞ্জন চৌধুরী। আগামী লোকসভা ভোটে বাংলায় সেই কংগ্রেসের সাথে জোট করে তৃনমূল ও বিজেপি বিরোধী হয়ে লড়ার পরিকল্পনা করছিল হাত ও কাস্তে হাতুড়ি শিবির। কিন্তু হাইকমান্ডের নির্দেশে সেই প্রদেশ সভাপতি পদে অধীর চৌধুরীকে সরিয়ে সৌমেন মিত্রকে আনায় বামেদের সেই আশায় জল পড়ল বলে মনে করছেন একাংশ।

এদিকে এই সৌমেন মিত্রকে সভাপতি পদে বসানোর কারন হিসাবে অনেকে মনে করছেন যে, সারা দেশে মোদী বিরোধীতায় সরব হয়েছেন তৃনমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিজের রাজ্যে বিব্রত করলে সারা দেশে হিতে বীপরিত হতে পারে কংগ্রেসের। তাই আদ্যপ্রান্ত মমতা বিরোধী মুখ অধীরকে সরিয়ে বঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি পদে বসানো হল সৌমেন মিত্রকে।

এইখানেই বামেদের আশঙ্কা যে, এমনিতেই এই রাজ্যে তাদের দলীয় সংগঠনে মরচে ধরেছে। আগামী লোকসভায় একা লড়লে কোনো লাভ তৌ হবেই না উল্টে মুখ পুড়তে পারে আলিমুদ্দিন স্ট্রীটের। আবার এই পরিস্থিতিতে তৃনমূলের সাথেও জোট রতে নারাজ বঙ্গের বাম নেতারা। ফলে প্রদেশ কংগ্রেসের সভিপতি পদে বদল হওয়ায় বড়ই ফাঁপরে বামেরা। এখন কি করবেন তাঁরা?

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিন সেই প্রসঙ্গে বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “নেতৃত্ব বদল হলেও এই রাজ্যে ধর্মনিরপেক্ষতা সহ একাধিক ইস্যুতে প্রদেশ কংগ্রেসের সাথে আমাদের কোনোও মতের পরিবর্তন হবে না।” অন্যদিকে এই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বদল যে আদতে রাজ্যে তৃনমূলের সাথে জোট করতেই এদিন সেই ব্যাপারে কংগ্রেসকে কটাক্ষ করেছেন বিজেপির রাজ্য সভিপতি দিলীপ ঘোষ। তবে যে যাই বলুক না কেন! প্রদে সভাপতি বদল হওয়ায় আগামী লোকসভায় এই রাজ্যে তৃনমূল এবং কংগ্রেসের জোট হলে কি করবে বামেরা তা নিয়ে প্রবল চিন্তায় বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্ররা।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!