এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > অধিকারীদের বাদ দিয়েই কি মেদিনীপুরে ঘুঁটি সাজাচ্ছে তৃণমূল? আসরে নামলেন তিন হেভিওয়েট মন্ত্রী

অধিকারীদের বাদ দিয়েই কি মেদিনীপুরে ঘুঁটি সাজাচ্ছে তৃণমূল? আসরে নামলেন তিন হেভিওয়েট মন্ত্রী



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – এখনও পর্যন্ত শুভেন্দু অধিকারী পূর্ব মেদিনীপুরের অবিসংবাদিত নেতা। তার বাবা শিশির অধিকারী জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি। ভাই দিব্যেন্দু অধিকারী অন্যতম সাংসদ। কিন্তু সেই শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা যখন চরম আকার ধারণ করেছে, তখন মাঝে মধ্যেই তার গড় পূর্ব মেদিনীপুরে উপস্থিত হতে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা মন্ত্রীদের। এবার শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রিত্ব পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার তিন দিনের মাথায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় একাধিক রাজনৈতিক কর্মসূচি করল তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু তাতে অনুপস্থিত থাকতে দেখা গেল অধিকারী পরিবারের সকল সদস্যকে।

স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এবার নতুন জল্পনার সৃষ্টি হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। এমনিতেই শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে বলে নানা মহলের দাবি করা হয়েছিল তার মধ্যে তৃণমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রীরা পূর্ব মেদিনীপুরে এসে সভা করলেও শুভেন্দুবাবুর বাবা তথা জেলা তৃণমূল সভাপতি শিশির অধিকারী বা তার পরিবারের অন্যান্য তৃণমূলের পদাধিকারী এবং জনপ্রতিনিধিরা সেখানে কেন উপস্থিত থাকলেন না, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন। তাহলে কি গোটা অধিকারী পরিবারের সঙ্গেই এবার তৃণমূলের দূরত্ব বাড়তে শুরু করেছে! জানা গেছে, রবিবার কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতির প্রতিবাদে হলদিয়ায় তৃণমূলের পক্ষ থেকে একটি মিছিল করা হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সুজিত বসু।

অন্যদিকে কাঁথিতে তৃণমূলের পক্ষ থেকে আরও একটি সভা করা হয়‌‌। যেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। কিন্তু জেলায় এই ধরনের দলীয় সভা হলেও সেখানে অনুপস্থিত থাকতে দেখা যায় জেলা তৃণমূলের সভাপতিকে। শুধু তাই নয়, শুভেন্দু অধিকারী এখনও পর্যন্ত দলের বিধায়ক। স্বাভাবিকভাবে তিনিও এই সভায় অনুপস্থিত ছিলেন। যার ফলে গোটা অধিকারী পরিবারের সদস্যরা তৃণমূলের সভায় অনুপস্থিত থাকায় নতুন করে বিড়ম্বনা বাড়তে শুরু করেছে শাসকদলের অন্দরমহলে। পাকাপাকিভাবে তাহলে কি অধিকারী পরিবারের সঙ্গে বিচ্ছেদ তৈরি হল তৃনমূলের?


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

শাসকদল কি তাহলে মনস্থির করে নিয়েছে যে, অধিকারী পরিবারকে বাদ রেখেই তারা পথ চলবে? কেন জেলার সভাপতি শিশির অধিকারী বা শুভেন্দু অধিকারীর মত হেভিওয়েট নেতাকে সভায় ডাকা হল না? এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন, “শুভেন্দু যদি কোনো অরাজনৈতিক সভা করে থাকে, এতে কোনো অপরাধ নেই। আমরা সকলেই একাধিক অরাজনৈতিক সভা করে থাকি। তিনি নিজে যতক্ষণ না নিজের মুখে কিছু বলছেন, ততক্ষণ পর্যন্ত অযথা বিতর্ক জিইয়ে রাখতে চাইছে সংবাদমাধ্যম।”

তবে ব্রাত্য বসু এই ব্যাপারে যে কথাই বলুন না কেন, পূর্ব মেদিনীপুরের যে কোনো সভা হলেও অধিকারী পরিবারকে জানানো হয় কিন্তু শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে যখন জল্পনা চলছে, তখন রাজ্যের তিন মন্ত্রী পূর্ব মেদিনীপুরে সভা করলেও, কেন সেখানে অধিকারী পরিবারের কোনো সদস্য উপস্থিত হলেন না, তা নিঃসন্দেহে চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে তৃণমূলের নিচুতলার কর্মী সমর্থকদের কাছে।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!