এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কর্ণাটক বিপর্যয়ের পর রাহুলকে সরিয়ে প্রিয়াঙ্কাকে আনার গণবিস্ফোরণ কংগ্রেসের অন্দরে

কর্ণাটক বিপর্যয়ের পর রাহুলকে সরিয়ে প্রিয়াঙ্কাকে আনার গণবিস্ফোরণ কংগ্রেসের অন্দরে



২০১৯ ‘র লোকসভা নির্বাচনের পূর্বে কর্ণাটক নির্বাচনই ছিলো জাতীয় কংগ্রেস দলের কাছে নিজেদের অস্তিত্ব এবং সর্বোপরী অবস্থান প্রমাণ করার একটা সুযোগ। এই নির্বাচনে পরাজয়ের পরে সেই সুযোগ ও কার্যত হাত ছাড়া হয়ে গেলো স্বাধীনতার পূর্বোত্তর সময়ের এই দলটির।  দলের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধীর সভাপতিত্বে এখন ভরসা করতে দ্বিমত হচ্ছেন দলের অনেক শীর্ষ নেতাই। এমত অবস্থায় তাঁরা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে ও দলের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদের দায়িত্ব দিতে চাইছেন। যদিও এই প্রসঙ্গে কোনো নেতাই প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেননি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

জানা যাচ্ছে দলের অনেকেই মনে করছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে সক্রিয় রাজনীতিতে আনলে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস বর্তমান পরিস্থিতির থেকে অনেকটাই ভালো ফল করবে। উল্লেখ্য বর্তমানে দেশের ২২ টি রাজ্যের শাসন ভার বিজেপির দখলে । এখন কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনে এ একক বৃতত্তম দল হিসেবে বিজেপির অবস্থান পাওয়া গেছে। তবে কংগ্রেসের আসন সংখ্যা বিজেপির থেকে কম হলেও জেডি(এস)-কে সঙ্গে নিয়ে সরকার গড়ার সম্ভবনা থেকেই যাচ্ছে কংগ্রেস দলের। প্রসঙ্গত কর্ণাটকে গত  বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস ১২২টি আসনে জয়লাভ করলেও এবার সেখানে পেয়েছে মাত্র ৭৪ টি। কর্ণাটক নির্বাচনের প্রচারের সময়ে দলের সভাপতি রাহুল গান্ধী তাঁর বক্তৃতার মাধ্যমে জনগনের মনোগ্রাহী হয়েই জানিয়েছিলেন গত ৪ বছরে দেশে অনেকগুলি রাজ্য হারতে হয়েছে কংগ্রেসকে। তবে এবার থেকে সেই অভ্যাস বদলাতে হবে। আর হার নয়। এমনকী ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস জিতলে তিনি নিজেই প্রধানমন্ত্রী হতে ও রাজি আছেন। এছাড়াও একটি সমীক্ষা কংগ্রেস সভাপতির রাজনৈতিক অস্তিত্ব নিয়েই কার্যত প্রশ্ন তুলে জানিয়েছে রাহুল গান্ধী রাজ্যের নির্বাচনের জন্যে যে যে কেন্দ্র গুলিতে দলীয় কর্মীদের প্রচারের উদ্দেশ্যে সভা করছিলেন সেখানেই নজর কাড়া ভাবে চুড়ান্ত খারাপ ফলাফল হয়েছে কংগ্রেস দলের। এই ঘটনা স্বাভাবিক ভাবেই রাজনৈতিক মহলে নানা প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে যার মধ্যে উল্লেখ যোগ্য হলও  কংগ্রেস সমর্থকরা কী রাহুল গান্ধীর নেতৃত্ব কে সেই অর্থে ভরসা করতে পারছেন না! এই পরিস্থিতিতে বিকল্প হিসেবে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে সক্রিয় রাজনীতিতে যোগদানের প্রয়োজনীয়তার দাবিতে সরব হচ্ছেন কংগ্রেস কর্মীরা। অবশ্য প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এখনও পর্যন্ত জাতীয় রাজনীতিতে নিজেকে যুক্ত করার বিষয়ে খুব একটা আগ্রহ প্রকাশ করেননি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!