এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নিজেদের অধিকার আদায় করতে এবার আন্দোলনে নামতে চলেছে পুরোহিতরা

নিজেদের অধিকার আদায় করতে এবার আন্দোলনে নামতে চলেছে পুরোহিতরা



আবারও একবার ব্রাহ্মন সমাবেশ হতে চলেছে পশ্চিম মেদনীপুরে। সুত্রের মতে প্রায় ৫০ হাজার পুরোহিত ১১ ফেব্রুয়ারি চন্দ্রোকোণা রোডে সভা করবে। এদিনের সভায় নিজেদের মধ্যে সমুহ আলোচনার‌ পর তাদের দাবি লিখিত ভাবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পেশ করা হবে। সভার আগে প্রায় ২হাজার ব্রাহ্মন নিয়ে স্থানীয় জেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে প্রস্তুতি বৈঠক করা হয়। এদিনের বৈঠকে পশ্চিম মেদনীপুর ব্রাহ্মন ট্রাস্টি বোর্ডের জেলা সভাপতি অলোক আচার্য্যর বক্তব্য,” মানুষের জন্ম থেকে মৃত্যু , যে কোনও উৎসব কিংবা গৃহ প্রবেশ পুরোহিত ছাড়া কোনও অনুষ্ঠানই সম্ভব নয়। অথচ বর্তমান সমাজে পুরোহিতরা আর্থিক দিক থেকে অবহেলিত। ফলে ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মেও‌ নব প্রজন্ম আর এই‌ পেশায় আসতে চাইছেন না। এটা সমাজের জন্য ক্ষতিকারক। তাই এই ‌উদ্যোগ।” সুত্রের খবর ন’দফা দাবি নিয়ে ১১ ফেব্রুয়ারি সমাবেশ হবে। যার মধ্যে রয়েছে- প্রতিটি জেলায় সংস্কৃত কলেজ তৈরি, পঞ্চম থেকে অষ্টম‌ শ্রেণি পর্যন্ত সংস্কৃত বাধ্যতামূলক করা, প্রতি ব্লকে ব্রাহ্মণ টোল, ব্রাহ্মণ ট্রাস্টি বোর্ডের মাধ্যমে দরিদ্র ব্রাহ্মণদের ভাতা প্রদান ও স্বাস্থ্য বিমা ইত্যাদি। এদিনের‌ বৈঠকে ট্রস্টি বোর্ডের কার্যকরী সভাপতি বিবেকানন্দ মুখোপাধ্যায়ও উপস্থিত ছিলেন। অলোক বাবু জানান, ” মুখ্যমন্ত্রী বাংলার প্রতিটি মানুষের কথা ভাবেন। আশা রাখি, তিনি আমাদের দাবিগুলি পূরণ করবেন।” এই বোর্ডের সকলেই‌ প্রায় তৃণমূলের প্রথম সারির নেতা। সুতরাং সেই নিয়ে রাজনৈতিক মহলের মত যে হিন্দুত্বের সমর্থনে বিজেপি রাজ্যে যে হাওয়া চালাচ্ছে তা রুখতেই তৃণমূলের এই সিদ্ধান্ত। যদিও অলোক বাবু এর সাথে রাজনৈতিক যোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার ‌করেছে। তাঁর দাবি,” এর সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই। ব্রাহ্মণরা সমাজের ‌অন্যতম কাঠামো‌ অথচ তাঁরাই আজ নানা ভাবে বঞ্চিত। তাই এই‌ উদ্যোগ।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!