এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > আর্জি জানিয়েও পুলিশে হেফাজতে নেওয়া গেল না মুকুল রায়কে, বড় ধাক্কা রাজ্য পুলিশের

আর্জি জানিয়েও পুলিশে হেফাজতে নেওয়া গেল না মুকুল রায়কে, বড় ধাক্কা রাজ্য পুলিশের



মুকুল রায়কে নিয়ে বড় ধাক্কা খেলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মমতা বান্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেবার পরেই খুনের মামলায় নাম জড়িয়েছিল মুকুল রায়ের। এই নিয়ে মামলাও হয়েছে। হাইকোর্ট এর কাছে জামিনের আবেদন করে জামিন ও পেয়েছিলেন। বীজপুরের কংগ্রেস নেতা মৃণাল কান্তি সিংহ রায়ের মৃত্য নিয়ে মৃণালবাবুর বোন সোনলীদেবী ব্যারাকপুর আদালতে মামলা করেছিলেন সেই সময় আদালত পুলিশকে এফআইআর রুজু করে তদন্তের রিপোর্ট জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এদিন বিচারক জয়মাল্য বাগচীর এজলাসে মামলাটি ফের উঠেছিল তখন পুলিশ অনুরোধ করে যে অভিযুক্তর জামিনের আবেদনের মেয়াদ যেন আর বাড়ানো না হয় কেননা এতে তদন্ত প্রক্রিয়া ব্যাহত হচ্ছে। তাঁরা অভিযুক্তকে জেরা করতে পারছেন না। এই নিয়ে বিচারক পুলিশের আর্জি খারিজ করে দেন এবং পালটা জিজ্ঞাসা করেন যে অর্ডারেই তো বলাই আছে, তদন্তের প্রয়োজনে আপনারা ওঁকে ডাকতে পারেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত আপনারা কি ওঁকে ডেকেছেন? জবাব দিতে পারেনি পুলিশ। আর এরপরই ফের আগাম জামিনের মেয়াদ বাড়িয়ে দিয়ে আগামী ১০ মে পর্যন্ত করেন বিচারপতি। এই নিয়ে মুকুল রায়ের আইনজীবী আশিস সান্যাল বলেন, ”এটা রাজনৈতিক এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত একটি মামলা। মুকুল রায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন বলেই তাঁকে চক্রান্ত করে ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে। কারণ, মৃণালবাবু মারা গিয়েছেন তিন বছর আগে। তহলে এতদিন কেন অভিযোগ করেননি?” তবে পঞ্চায়েত ভোটের আগে মুকুল রায়কে স্বস্তি দিলেও মমতা সরকারের অস্বস্তি বাড়লো বলেই মনে করছে রাজনৈতিকমহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!