এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > শুক্রবারের আদালতের ‘ঝড়’ আটকানোর রোডম্যাপ খুঁজতে নবান্নে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক

শুক্রবারের আদালতের ‘ঝড়’ আটকানোর রোডম্যাপ খুঁজতে নবান্নে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক



আগামী শুক্রবার ৪ঠা মে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে শুরু হচ্ছে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনের নিরাপত্তা সংক্রান্ত মামলার শুনানী। তার আগে বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার তাদের শেষ মুহূর্তের আলোচনা পর্বটি সেরে নিতে চাইছেন। মুখ্যসচিব মলয় দে-র নেতৃত্বে নবান্নে এই বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্র সচিব অত্রি ভট্টাচার্য, রাজ্য পুলিশের ডিজি, এডিজি-রা। উল্লেখ্য পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন পর্ব সমাপ্তির পরেও নির্বাচনী প্রচার কার্যে নানা রকমের বিপত্তি দেখা দিচ্ছে। হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ এপঞ্চায়েত নির্বাচনের নিরাপত্তা সংক্রান্ত মামলা পাঠিয়েছে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

আগামী ৪ ঠা মে রাজ্য সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে নির্বাচনে নিরাপত্তা বিষয়ক রিপোর্ট পেশ করতে হবে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের ডিজি সুরজিত্‍ কর পুরকায়স্থ জানান নরান্নের তরফ থেকে একদফায় এই ভোট করতে পাঁচ রাজ্যকে বাহিনী চেয়ে চিঠি লেখা হয়েছে এবং তিনি নিশ্চিত করেন রাজ্যের পুলিশ, কারারক্ষী ও পাঁচ রাজ্য থেকে বাহিনী এলে এক দফায় ভোট করা যাবে। কিন্তু পাঁচ রাজ্য থেকে কত বাহিনী আসবে, সেই বিষয়ে এখনও কোনো সঠিক তথ্য দিতে পারেনি রাজ্য সরকার। আগামী শুক্রবার সেই হিসেবই পেশ করতে করতে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির কাছে। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে স্থির হবে পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিনপঞ্জি। উল্লেখ্য রাজ্যের মোট ৫৮,০০০ বুথের মধ্যে নির্বাচন হবে ৪৭,০০০ বুথে। এখন রাজ্যের সশস্ত্র পুলিশের সংখ্যা মাত্র ৪৬ হাজার এবং সাথে রয়েছে ১২ হাজার লাঠিধারী পুলিশ। রাজ্য সরকার ১৪ ই মে’র সম্ভাব্য তারিখে নির্বাচনের নিরাপত্তার জন্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী বহাল না করে পাঁচ রাজ্য থেকে বাহিনী আনছে।

আজ থেকে প্রিয় বন্ধু বাংলার অফিসিয়াল ফেসবুক আইডি হল, আমাদের সব খবর, সমস্ত আপডেট পাওয়া যাবে এখানেই – Priyo Bandhu Bengali  (https://www.facebook.com/pbmediaofficial/)

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!