এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতের আগে অনুব্রতর মন্তব্যে বিতর্ক,অস্বস্তিতে শাসকদল

পঞ্চায়েতের আগে অনুব্রতর মন্তব্যে বিতর্ক,অস্বস্তিতে শাসকদল



তৃণমূলের রামপুরহাট ১ নম্বর ব্লকের মহিলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় এদিন সেখানে মহিলা কর্মীদের নির্দেশ দেবার পাশাপাশি মাস ছয়েক আগে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে দলের রামপুরহাট শহর সভাপতি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল সুশান্ত মুখোপাধ্যায়কে ‘ভাল ছেলে’ সম্বোধন করে ফের খবরের শিরোনামে অনুব্রত মন্ডল।স্বাভাবিকভাবেই বিতর্ক ছাড়িয়েছে এই নিয়ে। রাজনৈতিকমহলে প্রশ্ন উঠেছে যে ,যেখানে দলের দুর্নীতিগ্রস্তদের দল থেকে দূরে সারানোর নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে সেখানে কি করে অনুব্রতবাবু সুশান্ত মুখোপাধ্যায়কে ভালো ছেলে বলে পরিচয় করাচ্ছেন। অন্যদিকে সামনের পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন কেন্দ্রে প্রথমেই মহিলাদের ঝুড়িতে বাতাসা এবং কলসিতে জল রেখে বিরোধীদের মাথা ঠান্ডা করার নির্দেশ আগেই দিয়েছিলেন এদিন সেই নির্দেশেই বাড়তি কিছু মাত্রা সংযোজন করলেন এদিন তিনি নির্দেশ দিলেন এবার তেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দিলেন।এদিন তিনি বলেন, “প্রত্যেক দিন দুই হাজার করে মহিলা মনোনয়ন কেন্দ্রে থাকবেন। কেউ চোখ রাঙালে তেড়ে যাবেন। ভয় পাবেন না। আমি আপনাদের পাশে আছি।’’ অনুব্রত মন্ডল বীরভূমের জেলা সভাপতি জেলা জুড়ে ধুমধাম করে রামনবমী পালনের নির্দেশ দিয়েছেন। আর এবার তাকে পাল্টা দিলেন অনুব্রত।এই সেই নিয়ে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়। এদিন তিনি কটাক্ষ করে তৃণমূলের রামনবমীকে ‘নকল রামনবমী’ বলেন। এদিন লোকেটদেবীকে তিনি বলেন , “উনি অভিনয়টা ভাল জানেন। কিন্তু উনি রামনবমী জানেন না। উনি ভাল পণ্ডিতের কাছ থেকে রামনবমী শিখে আসুন।’’ তাছাড়া বিশ্বভারতীর দায়িত্বে থাকা গগন সরকার সম্পর্কে বলেন, “উনি বকতে পারেন না। আমার মতো লাল চোখ দেখাতে পারেন না।’’ এই সব কিছুই বিতর্কের কারণ। যদিও এই সব নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছ থেকে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!