এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > অভিষেকের নির্দেশের পরই তড়িঘড়ি সম্মান প্রদান হেভিওয়েট নেতাকে, 2021 নিয়ে বাড়ছে বিজেপির চাপ?

অভিষেকের নির্দেশের পরই তড়িঘড়ি সম্মান প্রদান হেভিওয়েট নেতাকে, 2021 নিয়ে বাড়ছে বিজেপির চাপ?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – মাঝে তৃণমূলের সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন তিনি। কিন্তু বিজেপিতে থাকা তার পক্ষে সম্ভব হয়নি। যার ফলে কিছুদিন আগেই আবার তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে আসেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার অবিসংবাদিত নেতা বিপ্লব মিত্র। তবে তৃণমূলে ফিরলেও সেই বিপ্লব মিত্রকে জেলা নেতৃত্ব ঠিকমত কাজে লাগাচ্ছেন না বলে নানা মহলে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছিল। যার ফলে ক্ষুব্ধ ছিলেন বিপ্লববাবু এবং তার অনুগামীরা। কিন্তু সম্প্রতি শিলিগুড়িতে এসে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করে সেই বিপ্লব মিত্রকে যাতে জেলার সমস্ত কর্মসূচিতে ডাকা হয়, তার জন্য নির্দেশ দেন তৃণমূলের যুবরাজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

আর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশের পরেই জেলার কোর কমিটির বৈঠক ডাকা হল সেই বিপ্লব মিত্রকে। সূত্রের খবর, আগামী 17 অক্টোবর জরুরী ভিত্তিতে তৃণমূলের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কোর কমিটির বৈঠক ডাকা হয়েছে। আর সেই বৈঠকে কোনো গুরুত্বপূর্ণ পদ না থাকা সত্ত্বেও আমন্ত্রণ জানানো হল বিপ্লব মিত্রকে। আর বিপ্লব মিত্রকে এই কমিটির বৈঠকে ডাকার পেছনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ রয়েছে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার শিলিগুড়িতে উত্তরবঙ্গের অন্যান্য জেলার পাশাপাশি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা নেতৃত্বকে নিয়ে একটি বৈঠক করেন তৃণমূলের যুবরাজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেখানেই উপস্থিত ছিলেন গৌতম দাস, শংকর চক্রবর্তী, বাচ্চু হাসদা এবং বিপ্লব মিত্রের মত নেতারা। জানা গেছে, বিপ্লব মিত্র সেই বৈঠকে অভিযোগ করেছেন, দলের তরফ থেকে তাকে কোনো কর্মসূচিতে দেখা হচ্ছে না।

আর এরপরই যাতে বিপ্লববাবুকে নিয়ে সমস্ত কাজ করা যায়, তার জন্য নির্দেশ দেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বাভাবিক ভাবেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে আগামী 17 তারিখ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় কোর কমিটির বৈঠকে ডাক পেতে চলেছেন বিপ্লব মিত্র। তাহলে কি এবারে বিপ্লব মিত্র গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে চলেছেন আর তাই তাকে কোর কমিটির বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হল?


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূল সভাপতি গৌতম দাস বলেন, “বিপ্লবদা দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছেন। তাকে নিয়ে পথ চলতে আমার কোনো আপত্তি নেই। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে আমাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে, সকলে একসঙ্গে চলতে হবে। আগামী 17 তারিখ একটি বিশেষ বৈঠক ডেকেছি। সেই বৈঠকে কোর কমিটির সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন। পাশাপাশি বিপ্লবদাকেও উপস্থিত থাকার জন্য বলা হচ্ছে।” এদিকে কোর কমিটির বৈঠকে ডাক পেয়ে কিছুটা হলেও খুশি বিপ্লব মিত্র।

এদিন তিনি বলেন, “দল আমাকে সুযোগ দিলে অবশ্যই কাজ করব। জেলায় তৃণমূলকে প্রতিষ্ঠা করতে আমার অনেক সময় লেগেছিল। একটা ভুল বোঝাবুঝির কারণে আমি দল ছেড়েছিলাম। এখন মূল লক্ষ্য দলের সংগঠন শক্তিশালী করা। 17 তারিখের বৈঠকে ডাক পেয়েছি। অবশ্যই দলের যাতে ভালো হয়, সেজন্য সকলে এক সঙ্গে আলোচনা করে কাজ করব।” স্বাভাবিক ভাবেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করার পর বিপ্লব মিত্র অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যাবে বলে মনে করা হলেও, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশের পর তিনি আবার জেলা রাজনীতিতে সক্রিয় হয়ে উঠতে শুরু করেছেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে কোর কমিটির বৈঠকে ডাক পাওয়ার পর বিপ্লব মিত্রকে আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে কোনো বড়সড় জায়গা দেওয়া হয় কিনা, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!