এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > অভিষেকের খাসতালুকে বিধায়কের বিদ্রোহ! মান ভাঙাতে আসরে পিকে!

অভিষেকের খাসতালুকে বিধায়কের বিদ্রোহ! মান ভাঙাতে আসরে পিকে!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে তৃণমূল কংগ্রেসের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড বলা হয়। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের পর তিনিই দলের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেন বলে দাবি করেন। কিন্তু সেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজের গড় ডায়মন্ডহারবারের বিধায়কের বিদ্রোহ রীতিমত অস্বস্তিতে ফেলে দিচ্ছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বকে। আর এই পরিস্থিতিতে সেই ডায়মন্ডহারবারে তৃণমূল বিধায়ক দীপক হালদারের মান ভাঙাতে আসরে নামেন প্রশান্ত কিশোরের টিমের সদস্যরা। জানা গেছে, মঙ্গলবার দীপকবাবুর সঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের টিমের চারজন প্রতিনিধি বৈঠক করেন।

তবে আলোচনা ফলপ্রসূ হল কিনা, তা নিয়ে এখন ব্যাপক জল্পনা শুরু হয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সম্প্রতি ডায়মন্ডহারবারের কেল্লার মাঠে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে অনুপস্থিত থাকতে দেখা যায় সেই ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল বিধায়ক দীপক হালদারকে। যার পরিপ্রেক্ষিতে দলের একাংশের বিরুদ্ধে সরব হয়ে দীপকবাবু জানিয়ে দেন, তাকে অত্যন্ত দায়সারাভাবে হোয়াটস্যাপ ম্যাসেজের মাধ্যমে এই সভায় আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। স্বভাবতই এই ঘটনার পর থেকেই সেই দীপকবাবুকে নিয়ে জল্পনা ক্রমশ বাড়তে শুরু করে।

আর এমত পরিস্থিতিতে বিধানসভা নির্বাচনের আগে যাতে দীপক হালদারের মত বিধায়ক বড় কোনো সিদ্ধান্ত না নেন, তার জন্য এবার আসরে নামলেন প্রশান্ত কিশোরের টিমের সদস্যরা। মঙ্গলবার বিদ্রোহী বিধায়কের সঙ্গে বৈঠক করে তার ক্ষোভ প্রশমনের চেষ্টা করলেন তারা বলেই মনে করা হচ্ছে। অনেকে বলতে শুরু করেছেন, যদি ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল বিধায়ক বিদ্রোহ ঘোষণা করার সাথে সাথে দলত্যাগের মত সিদ্ধান্ত নেন, তাহলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করবে। তাই সেই বিধায়কের মান ভাঙ্গিয়ে তাকে এখন দলে রাখতেই প্রশান্ত কিশোরের টিমের সদস্যরা এই তৎপরতা গ্রহণ করলেন। যদিও বা দীপকবাবু স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি এখনও পর্যন্ত তৃণমূল কংগ্রেসেই আছেন।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলতে শুরু করেছেন, সম্প্রতি 15 জানুয়ারির পর তিনি তার সিদ্ধান্ত জানাবেন বলে জানিয়ে দিয়েছিলেন ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল বিধায়ক। আর তারপরেই আশঙ্কা তীব্র থেকে তীব্রতর হতে শুরু করেছিল। তাহলে কি 15 জানুয়ারির পর সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করবেন দীপক হালদার! তা নিয়ে তৈরি হয়েছিল প্রশ্ন। আর এমত পরিস্থিতিতে এবার সেই দীপকবাবুর মান ভাঙানোর জন্য আসরে নেমে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে দেখা গেল প্রশান্ত কিশোরের টিমকে। তবে ভবিষ্যতে কি সিদ্ধান্ত নেন দীপক হালদার, তার ওপরই সমস্ত কিছু নির্ভর করছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!