এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > অভিষেক-কাণ্ডে নয়া মোড়! এবার বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে কলকাতা পুলিশ? জানুন বিস্তারিত ভাবে

অভিষেক-কাণ্ডে নয়া মোড়! এবার বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে কলকাতা পুলিশ? জানুন বিস্তারিত ভাবে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট- অভিষেক কাণ্ডে এবার তদন্তের স্বার্থে নতুন করে কোমর বাঁধছে পুলিশ প্রশাসন। তাই এবার হয়ত নতুন করে কোনো তদন্ত শুরু হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। পুরনো ঘটনা ঝালিয়ে নিতে গেলে বলতে হয় গত ৫ই সেপ্টেম্বর রাতের ঘটনা। ওইদিন রাতে নিজের জীবন বাজি রেখে যেভাবে নীলাঞ্জনা দেবী ও তাঁর স্বামী দীপ শতপথী এক তরুণীর শ্লীলতাহানি রুখে অসীম সাহসিকতার পরিচয় দেন, তাতে স্তম্ভিত হয়ে যায় গোটা রাজ্য। ওই ঘটনায় নীলাঞ্জনা দেবীর সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানাতে দেখা গিয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে কলকাতা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মাকে।

কিন্তু ঠিক কি হয়েছিল ওইদিন রাতে?? ওইদিন রাত সাড়ে বারোটা নাগাদ একটি নিমন্ত্রণ রক্ষা করে ইএম বাইপাস লাগোয়া আনন্দপুর থেকে বাড়ি ফিরছিলেন নীলাঞ্জনা ও তাঁর স্বামী।ঠিক সেইসময় হঠাৎই একটি গাড়ি থেকে ‘বাঁচাও, বাঁচাও’ চিৎকার শুনতে পান নীলাঞ্জনা ও দীপ বাবু। এরপর কি হচ্ছে সেটা বুঝতে পেরে নিজেদের গাড়ি থামান তাঁরা।

এরপর তাঁরা দেখেন, পিছনের একটি গাড়ি থেকে এক তরুণীকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। এরপর নীলাঞ্জনা ওই তরুণীকে বাঁচাতে গেলে গাড়িটি তাঁর পা পিষে দিয়ে বেরিয়ে যায়। এই দুর্ঘটনায় তাঁর পায়ের হাড় ভেঙে টুকরো টুকরো হয়ে যায়। তবে এত পর্যন্ত ঠিক থাকলেও সমস্যা বাঁধে অন্য জায়গায়। জানা যায়, ওই নিগৃহীতা তরুণী নাকি অভিযুক্ত অভিষেকের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার করে নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন। বস্তুত, ‘পারিবারিক বিবাদ’ বলে উল্লেখ করেই নাকি এই মামলা প্রত্যাহার করে নিতে চান তিনি।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর এখানেই এবার ওই তরুণীর বিরুদ্ধেও মামলা শুরু করতে চাইছে পুলিশ। জানা গেছে, চলন্ত গাড়িতে তরুণীকে হেনস্তা, তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে মহিলার জখম হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় পর চার্জশিট পেশ করেছে কলকাতা পুলিশ। ঘটনায় ধৃত অভিষেক পাণ্ডের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা-সহ ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে এবং তদন্ত শেষ করে ১৫০ পাতার চার্জশিট পেশ করা হয়েছে আলিপুর আদালতে।

এর পাশাপাশি নিগৃহীতা তরুণীর বিরুদ্ধেও মামলা শুরু করতে চেয়ে পুলিশের তরফে আলিপুর আদালতে আরজি জানানো হয়েছে বলেও জানা গেছে।জানা গেছে, অভিযুক্ত অভিষেক পাণ্ডের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৭ ধারায় খুনের চেষ্টা, ৩৫৪ ধারায় শ্লীলতাহানি-সহ ৩২৩, ৩২৫, ৩৩৬, ৩৩৮ ও ২৮৯ ধারা যুক্ত করে চার্জশিট পেশ করা হয়েছে।

এছাড়াও ওই তরুণীর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ২০১ ও ২১২ ধারায় ভুল তথ্য প্রদান ও আসামিকে আশ্রয় দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে মামলা শুরু করতে চেয়ে আদালতের কাছে আবেদন জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ। দিন কয়েক আগেই এই ঘটনায় স্ট্রেচারে শুয়ে আলিপুর আদালতে নাকি গোপন জবানবন্দি দিয়েছেন প্রতিবাদী নীলাঞ্জনা চট্টোপাধ্যায়। আর তারপরপরই নাকি এই ঘটনায় পুলিশ চার্জশিট জমা দিয়েছে বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!