এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কোন আন্দোলন করেন নি, সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মেছেন। বিস্ফোরক মন্তব্য বিজেপি সাংসদের

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কোন আন্দোলন করেন নি, সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মেছেন। বিস্ফোরক মন্তব্য বিজেপি সাংসদের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব নেওয়ার পর একেবারে মাঠে নেমে পড়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্প্রতি হুগলি জেলার পোলবা-দাদপুর ব্লকের সাটিথান গ্রামে বজ্রপাতে মৃত্যু হয় কিরণ রায় নামে এক ব্যক্তির। গতকাল তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই উদ্যোগকে তীব্র কটাক্ষ করলেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানালেন, সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মাটি থেকে আন্দোলন করে তিনি উঠে আসেন নি।

গতকাল বজ্রপাতে মৃত কিরণ রায়ের পরিবার-পরিজনদের সঙ্গে দেখা করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর পরিবারকে আর্থিক সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। তাঁর চলে যাবার পর হুগলির পান্ডুয়ায় গিয়েছিলেন চুঁচুড়ার সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। সেখানে বেশ কিছু তৃণমূল কর্মী তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান বলে, অভিযোগ উঠেছে। ক্ষুব্দ সাংসদ জানান, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে হুগলি সফর করেছেন, তা একটি নাটক। তিনি জানালেন, বজ্রপাতে মৃত ব্যক্তিদের পরিবারের জন্য প্রথম আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপর দেখা যাচ্ছে তৃণমূল তাকে অনুসরণ করতে শুরু করেছে। তিনি জানালেন, তিনি আগে কখনো দেখেননি যে, বজ্রপাতে কারও মৃত্যু হলে, আর্থিক সাহায্য করতে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এরপরই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একাধিক বিস্ফোরক বক্তব্য রাখেন তিনি। তিনি জানালেন, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কোন আন্দোলন করেননি, সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মেছেন তিনি। তৃণমূল দলে প্রবীনদের দূরে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় মাটি থেকে আন্দোলন করে উঠে আসেন নি। কিন্তু বজ্রাঘাতে নিহত ব্যক্তির পরিবারের পাশে দাঁড়াতে যাচ্ছেন তিনি আকাশপথে। এটা একটা নাটকের সূচনা। তিনি কি চান? তা আগামী দিনে স্পষ্ট হবে।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তথা রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে নিয়ে বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের কটাক্ষের পর তার পাল্টা জবাব দিলেন হুগলি জেলা তৃণমূল সভাপতি দিলীপ যাদব। এ প্রসঙ্গে তিনি জানালেন, না জানাটা অপরাধ না, তবে না জেনে জানার ভান করা, বা মিথ্যা বলা অপরাধ। লকেট চট্টোপাধ্যায় জানেন না যে, এই ধরনের মৃত্যুর ক্ষেত্রে তাদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দেওয়া প্রথম শুরু করেছিল তৃণমূল সরকার। প্রধানমন্ত্রী রাজ্যের নানা প্রকল্পের অনুসরণ করেছেন, যা লকেট চট্টোপাধ্যায় জানেন না।

অন্যদিকে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ প্রসঙ্গে দিলীপ যাদব জানালেন যে, এতদিন তিনি জানতেন লকেট চট্টোপাধ্যায় দিলীপ ঘোষকে অনুসরণ করে থাকেন। এখন তিনি মনে করছেন, লকেট চট্টোপাধ্যায় শিবির বদল করে শুভেন্দু অধিকারীর দিকে এগিয়ে গেছেন। তাই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আকাশ পথে যাওয়া নিয়ে কটাক্ষ করেছেন। তাঁর এসব বক্তব্যের কোন বাস্তব ভিত্তি নেই। এভাবেই, তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পদক্ষেপ নিয়ে একদিকে বিজেপি সাংসদের কটাক্ষ, অন্যদিকে তার পাল্টা জবাব তৃণমূলের জেলা সভাপতির। সমস্ত কিছু নিয়ে সরগরম রাজ্যের রাজনীতি মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!