এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > আবারও ভুয়ো আইএএস গ্রেপ্তার পুলিশের জালে, প্রতারণার জালে লক্ষাধিক টাকা খোয়ালো প্রতারিত

আবারও ভুয়ো আইএএস গ্রেপ্তার পুলিশের জালে, প্রতারণার জালে লক্ষাধিক টাকা খোয়ালো প্রতারিত



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – শুধু কলকাতা থেকেই ভুয়ো আধিকারিক ধরা পড়ছে, এমনটা কিন্তু নয়। কার্যত রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে এই কদিনে একের পর এক ভুয়ো আধিকারিক সামনে এসেছে। কেউ নিজেকে পরিচয় দিয়েছে উচ্চপদস্থ পুলিশ অফিসারের মেয়ে বলে, আবার কেউ নিজেকে পরিচয় দিয়েছে আইএএস বলে। সাধারণ মানুষ এই ভুয়ো পরিচয়ের আড়ালে থাকা মানুষটিকে চিনতে না পেরে ঠকে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এবার আরও একজন ভুয়ো আধিকারিক ধরা পরল নবদ্বীপ থেকে। জানা গেছে, ধৃত আধিকারিক নিজেকে আইএএস অফিসার বলে পরিচয় দিয়েছেন। ধৃত ব্যক্তির নাম অচিন্ত্য বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাঁকে তাঁর শ্বশুরবাড়ির এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আর এই নিয়ে এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। কার্যত আইএএস অফিসার পরিচয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছেন অচিন্ত্য বন্দ্যোপাধ্যায়। একদিকে যেমন তিনি নীল বাতি লাগানো গাড়িতে করে ঘুরে বেড়িয়েছেন, ঠিক সেভাবেই একাধিক বেকারদের চাকরি দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা ঘুষ নিয়েছেন। এবং এই তথ্য পুলিশের সামনে এনে দেয় অভিজিৎ রায় বলে এক স্থানীয় বাসিন্দা। পুলিশি সূত্রে খবর, অভিজিৎ রায় নামক এক ব্যক্তি অচিন্ত্য বন্দ্যোপাধ্যায়কে 2 লক্ষ 25 হাজার টাকা দিয়েছিলেন চাকরী পাবার জন্য বলে জানা যাচ্ছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কাজ করে দেওয়ার নাম করে অচিন্ত্য বন্দোপাধ্যায় বিভিন্ন জনের কাছ থেকে যেমন টাকা নিতেন, অভিজিৎ রায়ের কাছেও সেভাবেই টাকা নিয়েছিলেন। কিন্তু দীর্ঘদিন কাজ করে না দেওয়ার পর অভিজিৎ রায় খোঁজ নিতে শুরু করেন অচিন্ত্য বন্দ্যোপাধ্যায় সত্যিই আইএএস অফিসার কিনা তা নিয়ে। আর এরপরেই খোঁজ খবর নিয়ে অভিজিৎ রায় জানতে পারেন অচিন্ত্য বন্দ্যোপাধ্যায় একজন ভুয়ো আইএএস আধিকারিক। সাথে সাথে তিনি পুলিশের সাথে যোগাযোগ করেন এবং অভিযোগ দায়ের করেন।

প্রতারণার অভিযোগে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে অচিন্ত্য বন্দ্যোপাধ্যায়কে। অন্যদিকে জানা গিয়েছে, এই ভুয়ো আইএএস এর সাথে পুলিশের বহু আমলার যোগাযোগ হয়েছিল। পাশাপাশি ধৃত প্রতারককে কৃষ্ণনগর আদালতে তোলা হয়েছে বলে খবর। আপাতত এই প্রতারককে বিশ্বাস করে যারা লক্ষ লক্ষ টাকা দিয়েছেন, তাঁরাও এবার অভিযোগ করার পথে। প্রতারক অচিন্ত্য কুমার বন্দোপাধ্যায় তাঁর প্রতারণার জাল আসলে কতদূর বিস্তৃত করেছিলেন এখন সেটাই জানার লক্ষ্যে পুলিশ।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!