এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আবারও মুখ্যমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক, অশুভ আঁতাত বলে দাবী বিরোধীদের

আবারও মুখ্যমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক, অশুভ আঁতাত বলে দাবী বিরোধীদের



তিন বছর আগেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন উড়িষ্যায় পা রেখেছিলেন, তখন তিনি মন্দিরে যাবার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু সে সময় তা নিয়ে চূড়ান্ত অশান্তি বেধেছিল পুরীর মন্দিরে। এবার আবারও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পা রেখেছেন উড়িষ্যায়। এই মুহূর্তে সেখানে তিনি ইস্টার্ন রিজিওনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠকে অংশগ্রহণ করতে গেছেন। অন্যদিকে, একই সময়ে উড়িষ্যায় উপস্থিত হচ্ছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ডাকা বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উপস্থিত থাকছেন বলে জানা গেছে। রাজনৈতিক মহলে জোর গুঞ্জন, দুজনের আলাদা বৈঠকের সম্ভাবনাও রয়েছে।

2017 সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় পুরীর মন্দিরে পুজো দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করা নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছিল অশান্তি। সেসময় জগন্নাথ মন্দিরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর পা রাখার ব্যাপারে চূড়ান্ত আপত্তি জানিয়েছিল শ্রী জগন্নাথ সেবায়েত সম্মিলনী। তাঁদের বক্তব্য ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোমাংস খাওয়ার স্বপক্ষে। তাই তাঁকে পুরীর মন্দিরের মতন পবিত্র জায়গায় ঢুকতে দেওয়া যাবে না। কিন্তু এবার উড়িষ্যা সরকার বিগত দিনের বিশৃঙ্খলার যাতে পুনরাবৃত্তি না হয়, সে ব্যাপারে সম্পূর্ণ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। জানা গেছে, বুধবার জগন্নাথ দেবের মন্দিরে পুজো দিতে যাচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক এর সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিকে শুক্রবার ভুবনেশ্বর এর একটি পাঁচতারা হোটেলে ইস্টার্ন সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠকের সমস্ত প্রস্তুতি সারা। সেই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে চলেছেন বাংলা-বিহার-উরিষ্যা, ঝাড়খন্ড, ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী, মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্রসচিবরা। তবে খুব সম্ভবত ইস্টার্ন রিজিওনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠকের পরেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি বৈঠক হবে। যেখানে অন্তর্দেশীয় বর্ডারের পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে একটি বিশেষ রিপোর্ট তুলে দেবেন বলে জানা গেছে।

সিএএ নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে জোরদার আন্দোলন ঘোষণার পরেও জানুয়ারি মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারও তিনি বিজেপি ও মোদির মন্ত্রিসভার সেকেন্ড-ইন- কমান্ডারের মুখোমুখি হতে চলেছেন। এই ঘটনায় রাজ্যের বিরোধী মহল সরব হয়েছে। বিরোধীদের দাবী অনুযায়ী তৃণমূল ও  বিজেপির অশুভ আঁতাতের প্রমা বারেবারে পাওয়া যাচ্ছে। অন্যদিকে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রের বিরুদ্ধে মুখ খুললেও কেন্দ্রে বিজেপি সরকার থাকার দরুন তাকে নিয়মানুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ মনোভাব রাখতেই হবে। আপাতত মুখ্যমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক এর ফলে কি হয় সেদিকে নজর সবার।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!