এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > আবার কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলি, বড়োসড়ো হুঁশিয়ারি তৃণমূল সুপ্রীমোর

আবার কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলি, বড়োসড়ো হুঁশিয়ারি তৃণমূল সুপ্রীমোর



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্যের চতুর্থ দফার নির্বাচনের কথা মনে পড়ে? শীতলকুচির মাটিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে 4 জন নিহত হয় সেদিন। আরো একবার শীতলকুচির ছবি দেখা গেল অশোকনগরে। ষষ্ঠ দফায় নির্বাচন চলছে আজ। আর সেই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছে অশোকনগর। সকাল থেকেই দফায় দফায় অশান্তির খবর পাওয়া যাচ্ছিল।

বেলা গড়াতেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠুলো। আর এই নিয়ে এবার তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তীব্র হুঁশিয়ারি দিলেন। শীতলকুচি পর আবারও অশোকনগরে গুলি চালানোর অভিযোগ প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সতর্ক করে বললেন, গুলি চালালে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আসানসোলে সভা করতে গিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী আজ। আর সেখান থেকেই কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী তথা টালিগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়কেও একহাত নেন। ঐ একই সভা থেকেই তৃণমূল নেত্রী কেন্দ্রীয় বাহিনীর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন।

পাশাপাশি অশোকনগরের তৃণমূল কর্মীদের লক্ষ্য করে গুলি চালানোর অভিযোগ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, দুজনের ওপর কেন্দ্রীয় বাহিনী গুলি চালিয়েছে। তাঁরা দুজনেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন, ষষ্ঠ দফার নির্বাচনে চার থেকে পাঁচটি আসনের বেশী আসন পাবেনা বিজেপি।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, আজকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে যে দুজন ব্যক্তি আহত হয়েছেন, তাঁরা দুজনেই শাসক দলের কর্মী হিসেবে পরিচিত এলাকায়। অন্যদিকে বিজেপি অভিযোগ করছে, আজ বেলা 11 টায় অশোকনগর বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী তনুজা চক্রবর্তী আদর্শ শিক্ষায়তন বুথে ঢোকামাত্রই শুরু হয় ঝামেলা। সেসময় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের শুরু করে পরিস্থিতি সামাল দিতেই জওয়ানরা গুলি চালায় তবে বিজেপির দাবি অভিযোগ কেন্দ্রীয় বাহিনী গুলি চালিয়েছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

সবমিলিয়ে ষষ্ঠ দফার নির্বাচনেও রাজনৈতিক অশান্তিতে দিনভর। উত্তেজিত হয়ে রইল রক্তপাতহীন নির্বাচন এবারেও রাজ্যের দেখা হলো না।অন্যদিকে গুলি চালানোর জন্য কে বা কারা জড়িত, তাই নিয়ে চলছে অভিযোগ প্রতিঅভিযোগ। তবে অশোকনগর কান্ডে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, তা যে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ সেকথা এক বাক্যে স্বীকার করে নিচ্ছে রাজনৈতিক মহল। আপাতত এই ঘটনা কোনদিকে মোড় নেয় সেদিকেই থাকবে নজর রজনৈতিক নজর।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!