এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > আবার বড়সড় ধাক্কা খেতে চলেছেন ভোডাফোন-এয়ারটেল গ্রাহকরা? একধাক্কায় অনেকটা বাড়তে চলেছে রিচার্জ?

আবার বড়সড় ধাক্কা খেতে চলেছেন ভোডাফোন-এয়ারটেল গ্রাহকরা? একধাক্কায় অনেকটা বাড়তে চলেছে রিচার্জ?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – লকডাউন শেষ হয়ে আনলক পর্ব চলছে দেশে। লকডাউনের শুরু থেকেই দেশজুড়ে বিভিন্ন মোবাইল নেটওয়ার্কিং কোম্পানিগুলি দিতে শুরু করেছিল বিভিন্ন সুবিধা। লকডাউনের মধ্যে থেকেই শুরু হয়ে গেছিল অনেকের work-from-home। সেক্ষেত্রে ইন্টারনেটের সুবিধাসহ অন্যান্য বিভিন্ন সুবিধা দিচ্ছিল মোবাইল নেটওয়ার্কিং কোম্পানিগুলি। কিন্তু এবার ভোডাফোন এবং এয়ারটেল ঘোষণা করেছে তাঁরা তাঁদের রিচার্জ প্ল্যানের দাম বাড়িয়ে দেবে। সূত্রের খবর, গত ডিসেম্বর মাসে তাঁরা 40% রিচার্জ প্ল্যানের দাম বাড়িয়ে দিয়েছিল।

জানা গেছে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে আরও একবার 10% পর্যন্ত দাম বাড়াতে পারে এই দুই মোবাইল নেটওয়ার্কিং সংস্থা। আগামী সেপ্টেম্বর, অক্টোবর মাসের মধ্যে 2-5% হারে দাম বাড়াতে পারে ভোডাফোন, এয়ারটেল। এবং পরবর্তী ছয় মাসে 10% বাড়বে রিচার্জ প্ল্যানের দাম। অর্থনৈতিক বিশ্লেষকদের অনেকের মতে, খুব শীঘ্রই আরও একবার দাম বাড়াতে চলেছে টেলিকম কোম্পানীগুলি। করোনা মহামারীর কারণে যে বিপুল ক্ষতির বোঝা বইতে হচ্ছে টেলিকম সংস্থাগুলিকে, সেই ক্ষতি এবার কমানোর পালা।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে ভারতের টেলিকম মন্ত্রক ইতিমধ্যে জানিয়েছে, এবার থেকে বৈধ হচ্ছে অনলাইন সিম ভেরিফিকেশন। সূত্রের খবর, এবার থেকে সমস্ত প্রমাণপত্র নিয়ে আর দোকানে গিয়ে সিমের খোঁজ করতে হবেনা। বাড়ি বসেই সিম পাওয়া যাবে। অনলাইন পোর্টালে প্রয়োজনীয় নথিপত্র দিলে পছন্দ মতন টেলিকম কোম্পানির কানেকশন পাওয়া যাবে। সিম কার্ড বাড়িতেই চলে আসবে। ছবিসহ নথিপত্র অনলাইন পোর্টালে আপলোড করলে কাস্টমারের অন্য একটি মোবাইলে ওটিপি যাবে এবং সেই ওটিপি নির্দিষ্ট স্থানে যথাযথভাবে দিলে নতুন নাম্বার চালু হয়ে যাবে।

অন্যদিকে টেলিকম বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা পরিস্থিতিতে যে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে বলে দাবি করছে ভোডাফোন, এয়ারটেল তা নিয়ে কিন্তু সন্দেহ থাকছে। কারণ লকডাউনকালেও জিও, বিএসএনএল এর পাশাপাশি ভোডাফোন, এয়ারটেলেরও কিন্তু গ্রাহক সংখ্যা বেড়েছে। এবং তারা বিভিন্ন প্ল্যানের মাধ্যমে গ্রাহকদের পরিষেবা দিয়েছে। অন্যদিকে আনলক পরিস্থিতি চললেও দেশে এখনো পর্যন্ত খুব একটা স্বাভাবিক অবস্থা আসেনি। এই অবস্থায় দেশের দুই মুখ্য টেলিকম সংস্থা যদি এভাবে দাম বাড়িয়ে দেয় তাঁদের রিচার্জ প্ল্যানের তাহলে সাধারণ মানুষ খুব স্বাভাবিকভাবেই বিপাকে পড়বেন বলে মনে করা হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!