এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > ২১-এর আগে ক্রমশ ঘর গোছাচ্ছে তৃণমূল, গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জেরবার বিজেপিতেও বড়সড় সাংগঠনিক পরিবর্তন

২১-এর আগে ক্রমশ ঘর গোছাচ্ছে তৃণমূল, গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জেরবার বিজেপিতেও বড়সড় সাংগঠনিক পরিবর্তন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –বিধানসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে তৃণমূল ব্যাপক সাংগঠনিক রদবদল করেছে। উত্তরবঙ্গের দিকে নজর দিয়ে প্রায় প্রতিটি জায়গাতেই ভোটব্যাংকের ওপর বাড়তি গুরুত্ব দিয়েছে শাসকদল। যে এলাকায় যে মানুষদের বাস বেশি, সেখানে সেই রকম নেতৃত্ব তুলে এনে মুখ করা হয়েছে। স্বভাবতই 2021 এ যখন বিজেপি ক্ষমতা দখল করবে বলে জানাচ্ছে, তখন তৃণমূলের পক্ষ থেকে সাংগঠনিক পরিবর্তন করা ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না। এদিকে তৃণমূল যখন দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় ফিরতে সংগঠনকে শক্তিশালী করছে, ঠিক তখনই বিজেপির অন্দরে দেখা যাচ্ছে ব্যাপক গোষ্ঠী কোন্দল।

বর্তমানে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপিতে গোষ্ঠী কোন্দল থামাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে নেতৃত্বদের। তাই এই পরিস্থিতিতে বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় কোন্দল থামানোর জন্য জেলা যুব মোর্চার সভাপতি পদে নতুন কাউকে আনতে চলেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। শুধু তাই নয়, আরও ছয়টি মোর্চার সভাপতি পদে নতুন মুখ আনার ব্যাপারে চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। বস্তুত, গত বছরের ডিসেম্বর মাসে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি হয়েছিলেন বিশ্বজিৎ লাহিড়ী।

কিন্তু দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই জেলা যুব মোর্চার সভাপতি ভক্তকুমার রায়ের সঙ্গে তাঁর বিবাদ তৈরি হয়। গত পয়লা জুলাই জেলা বিজেপির পার্টি অফিসে বিশ্বজিৎবাবুর সঙ্গে যুব মোর্চার সভাপতি ভক্তকুমার রায়ের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে আসে। যার পরেই তাকে শোকজ করেন জেলা বিজেপি সভাপতি বিশ্বজিৎবাবু। পরিস্থিতি সামাল দিতে রায়গঞ্জে দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করেন বিজেপি রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ।

কিন্তু ওইদিন সেই বৈঠকে উপস্থিত না থেকে উল্টে দলীয় পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন ভক্তকুমার রায়। তার পরবর্তীতে দলীয় বিধায়কের মৃত্যুর ঘটনা থেকে রাজবংশী কিশোরীকে ধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিজেপি ব্যাপকভাবে আন্দোলনে নেমে পড়ে। যার ফলে তাদের দলীয় সমস্যা সমস্যাতেই থেকে যায়। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে আগামী দিনে যাতে কোন্দল আবার নতুন করে মাথাচাড়া না দেয়, তার জন্য এবার উদ্যোগী হল বিজেপি নেতৃত্ব।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, সম্প্রতি উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি যুব মোর্চার নতুন সভাপতির নাম ঘোষণা করা হবে। এছাড়াও এসসি, এসটি, সংখ্যালঘু, মহিলা এবং ওবিসি মোর্চার সভাপতির নাম ঘোষণা করতে চলেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। অর্থাৎ বিধানসভা নির্বাচনের আগে এখন জেলা সংগঠনকে রীতিমতো ঢেলে সাজাতে উদ্যোগী উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি নেতৃত্ব।

এদিন এই প্রসঙ্গে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি সভাপতি বিশ্বজিত লাহিড়ী বলেন, “আমি সভাপতি পদে আসার পরই সমস্ত কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। ভক্ত কুমার রায় যুব মোর্চার সভাপতি পদে নেই। তাই ইস্তফার প্রশ্নই থাকছে না। যুব মোর্চার নতুন সভাপতির নাম ঘোষণা করবে দলের রাজ্য নেতৃত্ব। আমি নাম পাঠিয়ে দিয়েছি। আর ছয়টি মোর্চার নতুন সভাপতির নামও ঘোষণা করা হবে।”

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে যাই বলুক না কেন, ক্ষমতায় আসার আগেই বিজেপির অন্দরে যেভাবে গোষ্ঠী কোন্দল শুরু হয়েছে, তাতে ক্ষমতায় চলে এলে তাদের ভেতরকার শৃঙ্খলা কতটা অটুট থাকবে, তা নিয়ে নানা মহলে প্রশ্ন মাথাচাড়া দিচ্ছে। তাই এই পরিস্থিতিতে দলের শৃঙ্খলা রক্ষা করতে এবং সংগঠনকে চাঙ্গা করে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে ভালো ফল করতে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি নেতৃত্বের পক্ষ থেকে ব্যাপক সাংগঠনিক রদবদলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। তবে এই রদবদল কতটা গ্রহণযোগ্য হয় এবং তার ফলে ভোট রাজনীতিতে বিজেপি কতটা সাফল্য পায়, সেদিকেই নজর থাকবে রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!