এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > আরো এক বিজেপি শাসিত রাজ্যে চালু সপ্তম বেতন কমিশন, হতাশা বাড়ছেই বাংলায়

আরো এক বিজেপি শাসিত রাজ্যে চালু সপ্তম বেতন কমিশন, হতাশা বাড়ছেই বাংলায়



ভূস্বর্গ জম্মু কাশ্মীর রাজ্যের সরকারী কর্মচারীদের জন্যে সুখবর দিলো সেখানকার বিজেপি শাসিত জোট সরকার। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ অনুসারে বেতন লাগু করলেন। সম্প্রতি রাজ্যের সরকারী কর্মীদের জন্যে এই বিজ্ঞপ্তি জারী করা হয়েছে। মনে করা হচ্ছে এপ্রিল থেকেই কমিশনের সুপারিশ অনুসারে বেতন হাতে পাবেন সরকারি কর্মীরা। মুখ্যমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তে স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত সরকারী কর্মী মহল। জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্য মন্ত্রীসভায় নয়া এই সিদ্ধান্ত পাশ হওয়ার ফলে রাজ্যের প্রায় পাঁচ লক্ষ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ওই নতুন হারে বেতন পেতে চলেছেন। রাজ্যের তথ্য ও জনসংযোগ দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, চলতি এপ্রিল মাস থেকেই বর্তমান কর্মী এবং অবসর প্রাপ্তরা ওই বর্ধিত হারেই অর্থ পাবেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

প্রসঙ্গত, সপ্তম বেতন কমিশনের প্রস্তাবিত ২০% বেতন বৃদ্ধির সুপারিশ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা গত বছরের জুলাই মাসেই অনুমোদন করেছিল। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারি কর্মীরা এই সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছিলেন। কয়েকটি রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই সপ্তম বেতন কমিশনের মাপকাঠিকে সামনে রেখে নিজস্ব নিয়মে বেতন দিয়ে চলেছে। সেই অর্থে কমিশনের পূর্ণাঙ্গ সুপারিশ মেনে বেতন দেওয়ার ব্যাপারে নজর কাড়া ভূমিকা নিলো জম্মু-কাশ্মীর রাজ্য। আর এই খবর সামনে আসতেই নতুন করে হতাশা বাড়ল বাংলার রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের। কেন্দ্রীয়হারে বেতন চালু করার জন্য গঠিত কমিটি এখনো তাদের সুপারিশ জমা দেয় নি রাজ্য সরকারকে। এদিকে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের সঙ্গে ডিএর ব্যবধান বাড়তে বাড়তে ৪৫% গিয়ে পৌঁছেছে, এই নিয়ে আদালতের মুখাপেক্ষী হয়েও এখনো কোনো সুরাহা পান নি তাঁরা। আর তাই সরকারি কর্মচারীমহলে প্রশ্ন শুরু হয়ে গিয়েছে একের পর এক রাজ্যে কেন্দ্রীয়হারে বেতন ও ডিএ চালু হয়ে যাচ্ছে, কিন্তু আমাদের রাজ্য সরকার কেন সেই দিকটা বিবেচনা করে দেখছেন না?

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!