এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ১৯ শে মে ‘বড়দিন’ – একসঙ্গে রাজ্যের ৬ বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন ঘোষণা করল কমিশন

১৯ শে মে ‘বড়দিন’ – একসঙ্গে রাজ্যের ৬ বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন ঘোষণা করল কমিশন



২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফার ভোট গ্রহণের দিন আগামী ১৯ শে মে – বঙ্গ রাজনীতিতে বড়দিন হিসাবে পরিগণিত হতে চলেছে। এমনিতেই সেদিন নজরকাড়া ৯ টি লোকসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ আছে – দমদম, বারাসত, বসিরহাট, জয়নগর, মথুরাপুর, ডায়মন্ড হারবার, যাদবপুর, কলকাতা দক্ষিণ ও কলকাতা উত্তর লোকসভা কেন্দ্রে। কিন্তু, সেই দিনই একইসঙ্গে ছ-ছটি বিধানসভা কেন্দ্রেও উপনির্বাচন হতে চলেছে বলে নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করেছে।

এমনিতেই এবারের লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গেই কৃষ্ণগঞ্জ ও উলুবেড়িয়া-পূর্ব কেন্দ্রের উপনির্বাচন হচ্ছে। কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসকে দুষ্কৃতীরা ‘পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ’ থেকে গুলি করে হত্যা করায় ওই বিধানসভা কেন্দ্রটি বর্তমানে বিধায়কশূন্য। অন্যদিকে, উলুবেড়িয়া পূর্বের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক হায়দার আজিজ সফির মৃত্যুতে ওই বিধানসভা কেন্দ্রটিও বিধায়ক শূন্য। ফলে, সংশ্লিষ্ট এলাকার লোকসভা নির্বাচনের দিনেই ওই দুই বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হয়ে যাবে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিকে, এতদিন বামফ্রন্ট ও কংগ্রেস ত্যাগ করে বহু বিধায়ক তৃণমূলে যোগ দিয়ে, বিধায়ক হিসাবে ‘সুবিধা’ না মেলার ভয়ে বিধানসভায় বলে এসেছেন – তাঁরা দলত্যাগ করেননি। আর বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ও তারফলে ‘সঠিকভাবে কিছু বুঝতে না পেরে’ এঁদের বিধায়ক পদ খারিজ করেননি। কিন্তু, এইসব ‘দলবদলু’ বিধায়কদের মধ্যে যাঁরা তৃণমূলের টিকিট পেয়েছেন, তাঁরা প্রার্থীপদ খারিজ হয়ে যাওয়ার ভয়ে অবশেষে বিধায়ক হিসাবে ইস্তফা দিয়েছেন।

আর তাই, আগামী ১৯ শে মে, দার্জিলিঙের গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা বিধায়ক অমর সিংহ রাইয়ের (তিনি বর্তমানে দার্জিলিং লোকসভায় তৃণমূল প্রার্থী), ইসলামপুরের কংগ্রেস বিধায়ক কানাইয়ালাল আগরওয়ালের (তিনি বর্তমানে রায়গঞ্জ লোকসভায় তৃণমূল প্রার্থী), কান্দির কংগ্রেস বিধায়ক অপূর্ব সরকারের (তিনি বর্তমানে বহরমপুর লোকসভায় তৃণমূল প্রার্থী), নওদার কংগ্রেস বিধায়ক আবু তাহেরের (তিনি বর্তমানে মুর্শিদাবাদ লোকসভায় তৃণমূল প্রার্থী) শূন্যস্থান পূরণ করতে উপনির্বাচন হতে চলেছে। এর পাশাপাশি হাবিবপুরের সিপিএম বিধায়ক খগেন মুর্মু মালদা উত্তর থেকে এবং ভাটপাড়ার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক অর্জুন সিং ব্যারাকপুর থেকে বিজেপির টিকিটে লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় – ওই দুই বিধানসভায় বিধায়ক শূন্য – সেখানেও আগামী ১৯ শে মে উপনির্বাচন হতে চলেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!