এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > “২০২১-এ সোনার বাংলা, আমরা লড়ব, জিতব।” আত্মবিশ্বাসী বক্তব্য বিজেপি সাংসদের

“২০২১-এ সোনার বাংলা, আমরা লড়ব, জিতব।” আত্মবিশ্বাসী বক্তব্য বিজেপি সাংসদের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি কলকাতায় এসে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর কিছুক্ষণের মধ্যেই বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে রেসকোর্সের মাঠে আসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। শুরু হতে চলেছে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য। তার পূর্বেই বিগ্রেড মঞ্চ থেকে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে একাধিক কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতৃত্ব।

রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য জানালেন যে, প্রধানমন্ত্রীর এই বিগ্রেড হলো জন,গণ, অধিনায়কের ব্রিগেড। তিনি জানালেন, পশ্চিমবঙ্গকে বিনিয়োগ বান্ধব হিসেবে তৈরি করতে হবে। আজ সকল মানুষ প্রতিবাদ জানাতে এগিয়ে এসেছেন। শাসক দল তৃণমূলকে কটাক্ষ করে তিনি জানালেন যে, তৃণমূলের ফেয়ারওয়েল শুরু হয়ে গিয়েছে। নিজের কথা বলে পশ্চিমবঙ্গে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে বিজেপি।

বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য জানালেন যে, বিজেপির রাজনীতি হলো সমন্বয়ের রাজনীতি, বিভেদের রাজনীতি নয়। তিনি জানালেন, গত রবিবার বাম, কংগ্রেসের ব্রিগেডে ভাগীদারীর ডাক দেওয়া হয়েছিল। আবার পশ্চিমবঙ্গে বিভাজনের চক্রান্ত করা হচ্ছে। তিনি জানালেন, কংগ্রেস, সিপিএম এতদিন মালাবদল করেছিল। এখন এসেছেন ভাইজান। ভাইজানকে উপ মুখ্যমন্ত্রী করবার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আবার বাম কংগ্রেসের ব্রিগেডকে তীব্র ভাষায় কটাক্ষ করলেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। লকেট চট্টোপাধ্যায় জানালেন যে, বাম কংগ্রেসের ব্রিগেডে মুখ্যমন্ত্রীর সহযোগিতায় লোক আনা হয়েছিল। ৩৪ বছরে কিছুই করতে পারেনি বাম ও কংগ্রেস। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে সোনার বাংলা গড়বে বিজেপি, বিজেপিই জিতবে নির্বাচনে। মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি জানালেন যে, বাংলার মেয়ে বিজ্ঞাপনের জন্য এত টাকা কোথা থেকে আনা হয়? বিজ্ঞাপনে খরচ করা হয় ১৫ কোটি টাকা। দিদির পায়ে হাওয়াই চটি, কিন্তু সিন্ডিকেট, কাটমানির টাকা এক জায়গাতেই গিয়েছে।

অন্যদিকে, আজ ব্রিগেডে উপস্থিত থাকছেন অভিনেতা যশ। ব্রিগেডে যোগদানের পূর্বে বহিরাগত ইস্যুতে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে কটাক্ষ করে তিনি জানালেন যে, বহিরাগত নিয়ে বিক্ষোভ এখন তৃণমূল দলের ভেতরেই শুরু হয়েছে। তৃণমূল দলের ভেতরেই একে অপরকে বহিরাগত বলতে শুরু করেছে। তিনি আরও জানালেন যে, বিজেপি যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে, সেই প্রার্থী তালিকা ভালো করে লক্ষ্য করলেই দেখা যাবে যে, শুধুমাত্র শিল্পীদের প্রার্থী করা হয়নি।

 

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!