এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > 2016 এর থেকেও বেশি ভোট নিয়ে রাজ্যে ক্ষমতায় ফিরছেন মমতা? দাবি তৃণমূলের নিজস্ব সমীক্ষায়?

2016 এর থেকেও বেশি ভোট নিয়ে রাজ্যে ক্ষমতায় ফিরছেন মমতা? দাবি তৃণমূলের নিজস্ব সমীক্ষায়?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বিজেপির চাপ যখন বাড়ছে এবং একের পর এক নেতা চলে যাচ্ছেন বিরোধী শিবিরে তখন চিন্তা প্রকট হচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের। তৃতীয়বারের জন্য তারা রাজ্যের ক্ষমতা দখল করতে পারবে কিনা, তা নিয়ে তৃণমূলের অনেক নেতার মধ্যেই রয়েছে সংশয়। গেরুয়া শিবিরের দাবি, এবার তারা রাজ্যের ক্ষমতা দখল করছে। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে 2016 সালের বিধানসভা নির্বাচনের তুলনায় আসন কিছু কম হলেও, 52 শতাংশ ভোট পেয়ে তৃণমূল রাজ্যের ক্ষমতা দখল করবে বলে মনে করছেন শাসক দলের একাংশ।

বিশেষ সূত্র মারফত খবর, ইতিমধ্যেই তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের পক্ষ থেকে আসনভিত্তিক হিসাব করা হয়েছে। যেখানে 52 শতাংশ ভোট পেয়ে তৃণমূল কংগ্রেস তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসতে পারে বলে দাবি করছেন শাসক দলের নেতা-কর্মীরা। আর এই অংক এখন কিছুটা হলেও স্বস্তিতে রাখছে ঘাসফুল শিবিরকে। কিন্তু যেখানে বিজেপির চাপ বাড়ছে প্রতিনিয়ত, সেখানে তৃণমূলের পক্ষ থেকে এত শতাংশ ভোট পাওয়া কি আদৌ সম্ভব হবে!

শাসকদলের একপক্ষের যুক্তি, গত 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী মুখ ছিলেন না। এমনকি তিনি কোনো কেন্দ্রে প্রার্থী হননি। কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধান মুখ। তাই তাকেই বাংলার মানুষ বেছে নেবে। এদিকে গত লোকসভা নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দেখে মানুষ সমর্থন করলেও, এবারের বিধানসভা নির্বাচনে মানুষের কাছে বিজেপির হয়ে ভোট চাইবেন দিলীপ ঘোষ। সেদিক থেকে দিলীপ ঘোষের ভাবমূর্তি নিয়ে যথেষ্ট প্রশ্ন তৈরি হয়েছে বঙ্গবাসীর মধ্যে। তার নানা বিতর্কিত মন্তব্য খুব একটা ভালো চোখে দেখছেন না রাজ্যবাসী। আর তাই এই সুযোগে তৃণমূল কংগ্রেস অনেকটাই মাইলেজ পেয়ে যেতে পারে বলে দাবি করা হচ্ছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

শাসক দলের দাবি, বিভিন্ন জায়গায় বিজেপি সংগঠনকে শক্তিশালী করলেও, কলকাতা এবং তার সংলগ্ন এলাকায় তাদের সংগঠন এখনও দুর্বল। সেদিক থেকে এখানে তারা ভালো ফল করবে। এছাড়াও নদিয়া, বীরভূম, মুর্শিদাবাদের মত জেলাগুলোতে তৃণমূল কংগ্রেস ভালো ফল করবে বলে দাবি করা হচ্ছে। এদিকে সাম্প্রতিককালে লোকসভা নির্বাচনের পর যে সমস্ত রাজ্যের নির্বাচন হয়েছে, সেখানে বিজেপির ভোট কমতে দেখা গেছে। সেদিক থেকে বাংলাতেও আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ভোট শতাংশ অনেকটাই নিচের দিকে নেমে আসবে বলে দাবি করছে তৃণমূল কংগ্রেস।

স্বাভাবিকভাবেই তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই ধরনের হিসাব সামনে আসায় এখন রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। ইতিমধ্যেই বিজেপির পক্ষ থেকে অভ্যন্তরীণ সমীক্ষা করে জানানো হয়েছে, তাদের দল আগামী দিনে রাজ্যের ক্ষমতা দখল করছে। 150 থেকে 160 টি আসন দখল করে তারা এবার বাংলার ক্ষমতা দখল করবে বলে আত্মপ্রত্যয়ী ভারতীয় জনতা পার্টি। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে আসন সংখ্যা কমলেও, 52% ভোট তাদের দিকে থাকবে বলে অভ্যন্তরীণ হিসাব কষে জানিয়ে দিল তৃণমূল কংগ্রেস।

তবে বিধানসভা নির্বাচন আসতে না আসতেই নানা সমীকরণ বদলাতে শুরু করবে। আর ভোটবাক্সে মানুষ শেষ কথা বলবেন। সেদিক থেকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল তাদের হিসাব নিকাশ শুরু করলেও জনতা জনার্দনের মনে কি আছে, তা ভোটবাক্স খোলার পরই স্পষ্ট হয়ে যাবে বলে মনে করছেন সকলের। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, শাসক থেকে বিরোধী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সমীক্ষা বাস্তবে কতটা মেলে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!