এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > একশো দিনের কাজে বেনজির দুর্নীতি উত্তরবঙ্গে, ৪ বছরে সাড়ে ৫ কোটি টাকা তছরূপ

একশো দিনের কাজে বেনজির দুর্নীতি উত্তরবঙ্গে, ৪ বছরে সাড়ে ৫ কোটি টাকা তছরূপ

Priyo Bandhu Media


পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার তথা মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী খুব গর্বের সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় জানান সারা ভারতবর্ষের পরিপ্রেক্ষিতে ১০০ দিনের কাজে বাংলা এক নম্বর। আর মুখ্যমন্ত্রীর সেই স্বপ্নের একশো দিনের প্রকল্পের কাজে বেনজির দুর্নীতির অভিযোগ সামনে এল উত্তরবঙ্গের কোচবিহারে। স্থানীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, দিনহাটার দুই নম্বর আটিয়াবাড়ি পঞ্চায়েতের ঝুড়িপাড়া গ্রামে গত ৪ বছরে প্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকা তছরূপ হয়েছে আর এর পিছনে নাকি রয়েছেন স্থানীয় পঞ্চায়েতের উপপ্রধান আব্দুল মান্নান ও স্থানীয় পোস্ট অফিসের কর্মীরা বলে স্থানীয় অধিবাসীরা অভিযোগ জানিয়েছেন।
এই খবর সামনে আসতেই রীতিমত শোরগোল পরে গেছে রাজ্য রাজনীতিতে। যদিও রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে এখনো কোনো বিবৃতি পাওয়া যায় নি। স্থানীয় অধিবাসীদের অভিযোগ, জব কার্ড জমা না রাখলে ১০০ দিনের কাজ পাওয়া যাবে না বলে তাঁদের কাছ থেকে পঞ্চায়েতের উপপ্রধান সব জব কার্ড নিয়ে নেন। ফলে গ্রামের প্রায় ৮০০ মানুষের জব কার্ড নিজের হাতে তুলে নেন তিনি, এরমধ্যে অনেক মৃত ব্যক্তির জব কার্ডও রয়েছে। ওই ৮০০ জব কার্ডধারীদের অ্যাকাউন্টে গড়ে ৩০ হাজার টাকা করে জমা পড়েছে গত ৪ বছর ধরে। কিন্তু পোস্ট অফিসের একশ্রেণির কর্মীর ‘সহযোগিতায়’ সেই সব টাকায় তুলে নিয়েছেন উপপ্রধান আব্দুল মান্নান, যার পরিমান খুব কম করে প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা। যদিও আব্দুল মান্নান নিজে বা স্থানীয় পোস্ট মাস্টার এই জব কার্ড নেওয়া বা টাকা তোলার অভিযোগ সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছেন। কিন্তু স্থানীয় বাসিন্দারা ‘প্রতারিত’ হয়ে রীতিমত ফুঁসছেন, এখন রাজ্য সরকার এত বড় দুর্নীতির বিরুদ্ধে কি পদক্ষেপ নেন সেই দিকেই তাকিয়ে তাঁরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!