এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > রাস্তাঘাটে মোবাইলে চার্জ দেন! সাবধান! আপনার ব্যাঙ্ক সহ গোপন তথ্য হ্যাকারদের হাতে যেতে পারে!

রাস্তাঘাটে মোবাইলে চার্জ দেন! সাবধান! আপনার ব্যাঙ্ক সহ গোপন তথ্য হ্যাকারদের হাতে যেতে পারে!

আজকালকার দিনে হাতে মোবাইল নেই, বিশেষ করে স্মার্টফোন নেই – এমন মাউস খুঁজে পাওয়া দুস্কর। অনেকে তো কাজের সুবিধার জন্য ২-৩ টি করে মোবাইল সেট সাথে রাখতেও অভ্যস্ত। কেননা আজকের দিনে যেকোন স্মার্টফোনই একটি ছোটোখাটো সুপার কাম্পিউটার! ফোন করা বা মেসেজ করা তো বটেই – ইন্টারনেটের ব্যবহার থেকে যাবতীয় ব্যাঙ্কিংয়ের কাজ আমরা মোবাইলে সারতেই অভ্যস্ত।

কিন্তু, এত কাজ যে মোবাইলকে করতে হয়, সেই মোবাইলের চার্জ নিয়ে আমাদের মাঝমধ্যেই সমস্যায় পড়তে হয়। আর মোবাইলের চার্জ ফুরিয়ে গেলে চোখে কার্যত অন্ধকার দেখেন প্রায় সকলেই। সেই সমস্যার সমাধানে এখন রাস্তাঘাটে, রেলস্টেশনে, ট্রেনে-বাসে সব জায়গাতেই প্রায় চার্জিং পয়েন্ট হয়ে গেছে। আর তাই একটু সময় পেলেই আমরাও সেইসব চার্জিং পয়েন্টে গিয়ে মোবাইলের ব্যাটারি একটু বাড়িয়ে নিই।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কিন্তু, সেই চার্জিং পয়েন্টে মোবাইল চার্জে বসিয়ে এবার সর্বস্বান্ত হতে পারেন আপনি! এমনই ভয়ঙ্কর কথা জানালো ভারতের এসবিআই! ব্যাঙ্কের মতে, আপনি যখন বাইরের অজানা কোনো চার্জিং স্টেশনে মোবাইল চার্জ করছেন, তখন আপনার অজান্তেই আপনার মোবাইলে ঢুকে যেতে পারে মালওয়্যার – আর যার মাধ্যমে হ্যাকাররা ব্যাঙ্কিং সহ আপনার মোবাইলের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে আপনাকে সর্বস্বান্ত করে ছাড়তে পারে!

এসবিআই এক নির্দেশিকায় জনিয়েছে, নিজের ফোন যে কোনও চার্জিং স্টেশনে চার্জ দেওয়ার আগে ২ বার ভাবুন। মালওয়্যারের মাধ্যমে আপনার ফোনো সংক্রমিত হতে পারে। আর এর হাত ধরেই হ্যকাররা আপনার পাসওয়াার্ড সহ বিভিন্ন গোপন তথ্য পাচার করতে পারে। এসবিআইএর দাবি, বিভিন্ন চার্জিং স্টেশনে মালওয়্যার বাইটস রয়েছে। যার হাত ধরে গোপন নথি হাতিয়ে নিতে অভ্যস্ত হ্যাকাররা। এর হাত ধরে ব্যাঙ্কের এটিএম পাসওয়ার্ডও বেরিয়ে যেতে পারে। ফলে যেখানে সেখানে ফোন চার্জ দেওয়া থেকে বিরত থাকারই বার্তা দেওয়া হয়েছে ব্যাঙ্কের তরফে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!