এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ইয়েদুরাপ্পা সরলেই নিশ্চিত নয় কুমারস্বামীর সংখ্যাগরিষ্ঠতা,টানটান উত্তেজনা কর্নাটকে

ইয়েদুরাপ্পা সরলেই নিশ্চিত নয় কুমারস্বামীর সংখ্যাগরিষ্ঠতা,টানটান উত্তেজনা কর্নাটকে

কর্নাটকের বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তেজনার পারদ ক্রমশ চড়ছে দুই যুযুধান গোষ্ঠীর ভিতর। সরকার গড়তে তৎপর দুই দলই। একদিকে রয়েছে বিজেপি অন্যদিকে রয়েছে কংগ্রেস-জেডিএসের  সংগঠন। তবে এদিন ঘটে গেল এক চমকে যাওয়ার মতো ঘটনা। বিধানসভায় আস্থা ভোটের আগে বক্তব্য রাখতে উঠে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন বিজেপি তরফের বি এস ইয়েদুরপ্পা। ১০৪ টি আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েও কাজে লাগাতে পারল না গেরুয়াপার্টি। কর্নাটকের লাগাম চলে যেতে পারে কংগ্রেস-জেডিএস শিবিরের কাছে। তবে এই জোটও যে সরকার গড়তে পারবে সে ব্যাপারে এখনই কিছু নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। কংগ্রেস-জেডিএস সংগঠন নিজেদের প্রার্থী ধরে রেখেছে। কংগ্রেসের তরফে রয়েছে ৭৮ জন এবং জেডিএসের ৩৭ (৩৮ ছিল,তবে কুমারস্বামী ২ টি আসন থেকে জেতায় কমে ১ হয়েছে),  এছাড়া নির্দল বিধায়ক ও বসবা বিধায়ক একজোট হয়ে রয়েছে। সব নিয়ে মোট সংখ্যাটা দাঁড়াচ্ছে ১১৭। কংগ্রেস- জেডিএস জোটের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হবে কর্নাটকের সরকার চালাতে গেলে। তাঁর জন্য প্রয়োজন ১১২ টি ভোট। অর্থাৎ প্রয়োজনের অতিরিক্ত ৫ টি ভোট রয়েছে তাঁদের কাছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

জানা যাচ্ছে,কংগ্রেস জেডিএস জোট কর্নাটকের রাজ্যপাল বাজুভাই বালাকে আর্জি জানাবেন তাঁদেরকে সরকার গড়ার আহ্বান দিতে। রাজ্যপালের তরফের আহ্বান পেলেই জেডিএস নেতা কুমারস্বামী মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য শপথবাক্য পাঠ করবেন। তারপরই তাকে প্রমাণ দিতে হবে সংখ্যাগরিষ্ঠতার। অন্যদিকে বিজেপি যে একদম সরকার গড়ার ময়দান থেকে সরে গেছে এমন ভাবনাটাও ভুল। বিজেপি যদি একবার কংগ্রেস-জেডিএস জোটের ভিতর পাঁচিল খাড়া করতে পারে তবে তাঁদের কেল্লা ফতেহ্ হতে সময় লাগবে না। ইয়েদুরাপ্পা আস্থা ভোট থেকে সরে এসে যেমন বিরোধীদের সুযোগ দিলেন তেমনই নিজেরাও তৈরি হওয়ার সময় পেলেন একরকম। এখন কংগ্রেস- জেডিএস জোটের একমাত্র লক্ষ্য হল নিজেদের বিধায়কদের ধরে রাখা। এ কদিনে বিজেপি যদি তাঁদের বিধায়কদের নিজেদের দলে টানতে সক্ষম হয়ে যায় তবে খেলা বিগড়াতে সময় লাগবে না। কাজেই সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে সব বিধায়কদের জোটবদ্ধ রাখাটাই আপাতত মূলমন্ত্র কুমারস্বামীর,নয়তো হতে পারে ইয়েদুরাপ্পার মতো অবস্থা। এমনটাই আশঙ্কা করছে রাজনৈতিকমহলের একাংশ।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!