এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সুখবর শিক্ষকদের জন্য! উস্থির আন্দোলনের জেরে সবটা না হলেও অনেকটাই বাড়তে চলেছে বেতন

সুখবর শিক্ষকদের জন্য! উস্থির আন্দোলনের জেরে সবটা না হলেও অনেকটাই বাড়তে চলেছে বেতন

সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক মঞ্চ হিসাবে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকদের ন্যায্য বেতনের দাবিতে বিকাশ ভবনের অদূরে উন্নয়ন ভবনের সামনে গত ১২ দিন ধরে অনশন আন্দোলন করে রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় তুলে দিয়েছে উস্থি ইউনিটেড প্রাইমারি টিচার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন। যে আন্দোলন নিয়ে সরকার প্রথমে মুখে কুলুপ আঁটলেও, পরবর্তীকালে প্রকাশ্য দলীয় সভামঞ্চ থেকে এই আন্দোলন নিয়ে কার্যত মুখ খুলতে বাধ্য হন স্বয়ং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

এমনকি এই নিয়ে প্রথমে কিছু বলতে না চাইলেও, পরে সাংবাদিকদের সামনে নিজের প্রতিক্রিয়া দেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাছাড়াও দলীয় বার্ষিক কর্মসূচি শহীদ দিবসের আগের সন্ধ্যায় উস্থির প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকেও বসতে একপ্রকার বাধ্য হন তিনি। যদিও সেই বৈঠক ফলপ্রসূ হয় নি, কিন্তু তখন থেকেই ইঙ্গিত মিলছিল বরফ গলার। এরপরে, শিক্ষকরা হার না মানা মানসিকতা নিয়ে ভেঙে পড়া শরীরেও অনশন চালিয়ে যান। ফলে, আরও বেশি করে সুশীল সমাজের সমর্থন যেতে থাকে অনশনকারী শিক্ষকদের প্রতি।

আর এরপরেই শিক্ষামন্ত্রী আজ নজরুল মঞ্চে শাসকদলের শিক্ষক সংগঠনের সঙ্গে এক আলোচনায় বসতে চলেছেন। প্রসঙ্গত, প্রাথমিকভাবে ঠিক ছিল এই বৈঠক হবে আগামী ২৭ তারিখ। কিন্তু যেভাবে অনশনকারী একের পর এক শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়ছেন, তাই আর কোনো ঝুঁকি নিয়ে এই বৈঠক দুদিন এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সূত্রের খবর, সেই বৈঠকের মঞ্চ থেকেই রাজ্যের শিক্ষকদের জন্য সুখবর ঘোষণা করতে পারেন শিক্ষামন্ত্রী।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

তবে, উস্থির দাবীমত পুরোটা হয়ত শিক্ষকরা পাবেন না। বর্তমানে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকরা পিবি-২ স্কেল পান। কিন্তু NCTE নর্ম অনুযায়ী তাঁদের পাওয়ার কথা পিবি-৪ স্কেল। কিন্তু, পিবি-২ থেকে পিবি-৪ করতে গেলে রাজ্যের ১ লক্ষ ৮৬ হাজার শিক্ষকের জন্য প্রতিমাসে অতিরিক্ত ৩-৪ হাজার কোটি টাকার ধাক্কা চাপবে রাজ্যে সরকারের ঘাড়ে। রাজ্য সরকারের দাবি মত, সেই অতিরিক্ত আর্থিক দায়ভার নেওয়ার মত কোষাগারের অবস্থা নেই। আর তাই, একটা মধ্যপন্থা ঘোষণা হতে পারে আজ।

বিভিন্ন সূত্রের খবর অনুযায়ী, নজরুল মঞ্চে আজ শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষকদের জন্য পিবি-৩ স্কেল ঘোষণা করতে পারেন। মুখ্যমন্ত্রী যতই প্রকাশ্য মঞ্চ থেকে শিক্ষকদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলুন, কেন্দ্রীয় হারে বেতন চাইলে, কেন্দ্রে চলে যান! এই বক্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে গোটা রাজ্য জুড়েই, নিজেদের ন্যায্য বেতনের দাবিতে রাজ্যের শিক্ষকরা অনশন করে ক্রমশ মৃত্যুমুখে পতিত হওয়ার জায়গায় যাচ্ছেন – এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গোটা রাজ্যই ক্ষোভে ফুটছে। আর তাই, উস্থির আন্দোলনের তীব্রতায় কিছুটা নিয়ে শিক্ষকদের বেতন বাড়ানোর পথে রাজ্য সরকার বলেই মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!