এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > আরএসপির ভোটই কি ফয়সালা গড়ে দেবে আলিপুরদুয়ারে? হিসাব কষছে তৃণমূল-বিজেপি – দুই শিবিরই

আরএসপির ভোটই কি ফয়সালা গড়ে দেবে আলিপুরদুয়ারে? হিসাব কষছে তৃণমূল-বিজেপি – দুই শিবিরই

লোকসভা নির্বাচনে এবার বাংলায় মূল লড়াই তৃণমূল বনাম বিজেপির মধ্যে হলেও প্রথম দফায় আলিপুরদুয়ার লোকসভা নির্বাচন হয়ে যাওয়ার পরই এবার সেখানকার বাম প্রার্থী মিলি ওঁরাও ঠিক কতটা ভোট কাটল সেই হিসেব কষা শুরু করে দিয়েছে শাসক দল তৃণমূল এবং বিরোধী দল বিজেপি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এবার এই আলিপুরদুয়ারে তৃণমূলের তরফে প্রার্থী হয়েছেন দশরথ তিরকি, বিজেপির জন বারলা এবং বামেদের তরফে প্রার্থী হয়েছেন প্রাক্তন সংসদ সদস্য ও পূর্ত দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী মনোহর তিরকির মেয়ে মিলি ওঁরাও। তথাকথিত এই আলিপুরদুয়ার লোকসভা এবার যে ৭ জন প্রার্থী রয়েছেন, তার মধ্যে শিক্ষাগত যোগ্যতায় সবার থেকে এগিয়ে রয়েছেন বাম প্রার্থী মিলি ওঁরাও।

তাছাড়া পারিবারিক দিক থেকেও বাবা মনোহর তিরকির মেয়ে হওয়ায় অনেকটাই অ্যাডভান্টেজ পেতে পারেন এখানকার বাম প্রার্থী বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহল। আর তাই গত বৃহস্পতিবারে প্রথম দফায় আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রের ভোটপর্ব মিটে যাওয়ার পরই মিলি ওঁরাও ঠিক কতটা ভোট কাটল তা নিয়ে প্রবল চিন্তার ভাঁজ পড়তে শুরু করেছে তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে। জানা গেছে, মনোহর তিরকি এখানকার প্রাক্তন জনপ্রতিনিধি ও চা বাগান আন্দোলনের দাপুটে নেতা হওয়ায় তাঁর মেয়ে এবার এখান থেকে বাম প্রার্থী হওয়ায় বামেদের ঝুলিতে বেশ কিছু ভোট আসতে পারে। আর বামেদের ঝুলিতে যত ভোট আসবে, ততই তৃণমূলের সুবিধা এবং বিজেপির চিন্তা বাড়বে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকেরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, গত ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে আলিপুরদুয়ারে তৃণমূল ২৯ শতাংশের কিছু বেশি, বিজেপি ২৭.৩৬% এবং বামেরা ২৭.৮৬% ভোট পেয়েছিল। কিন্তু গত ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচন ও পরবর্তীতে পঞ্চায়েত ভোটে এই জেলায় বামেদের ভোটব্যাংকে ধ্বস নামতে শুরু করে। তাই এবারের লোকসভা নির্বাচনে আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রের কিছুটা অভিজ্ঞ ও শিক্ষিত মিলি ওঁরাওকে প্রার্থী করে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক শক্ত করতে চেয়েছে বামেরা। আর এতেই চিন্তার ভাঁজ করতে শুরু করেছেন শাসক দল তৃণমূল ও বিরোধী দল বিজেপির কপালে। কিন্তু বামেদের এই ভোট কাটাতে কাদের লাভ হবে?

এদিন এই প্রসঙ্গে আলিপুরদুয়ার জেলা তৃণমূল সভাপতি মোহন শর্মা বলেন, “জেলায় বামেদের রক্তক্ষরণ হলেও আমাদের আশা মিলিদেবী তাঁর যোগ্যতায় ভালো কাটবেন। আর মিলিদেবী যত বেশী ভোট কাটবে, তত বেশি তৃণমূল ভোটের ফসল তুলতে পারবে।” অন্যদিকে তাদের প্রার্থীর ভালো ভাবমূর্তির জেরে এবার আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রে তারা ভালো ফল করবে বলে জানান আলিপুরদুয়ার জেলার আরএসপি সম্পাদক সুনীল বণিক। অন্যদিকে আরএসপি প্রার্থী মিলি তিরকি বেশি ভোট কাটলে আখেরে তাদেরই ক্ষতি বলে এদিন কিছুটা হলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন মাদারিহাটের বিজেপি বিধায়ক মনোজ টিগ্গা। সব মিলিয়ে এবার বাম ভোট কাটাকাটিতে শেষ পর্যন্ত আলিপুরদুয়ারে তৃণমূল না বিজেপি? নাকি বামেরাই এবার জয় লাভ করে? তা দেখবার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে আগামী ২৩ শে মে পর্যন্ত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!