এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আর বারাণসী নয় – প্রধানমন্ত্রী নতুন কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে লড়বেন? জল্পনা বাড়ালেন বিজেপি নেতা

আর বারাণসী নয় – প্রধানমন্ত্রী নতুন কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে লড়বেন? জল্পনা বাড়ালেন বিজেপি নেতা

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে তৎকালীন বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদী এক সাথে দুটি কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নেন। গুজরাটের ভদোদরা ও উত্তরপ্রদেশের বারাণসী। দুটি কেন্দ্র থেকেই বিপুল ভোটে জয়ী হওয়ার পর – বারাণসী কেন্দ্রটি নিজের জন্য রেখে ভদোদরা কেন্দ্রটি তিনি ছেড়ে দেন।

কিন্তু আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এই দুটি কেন্দ্রের একটিও নয় – বরং নতুন কেন্দ্র থেকে লড়তে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলে জানা গিয়েছে। ওড়িশার বিজেপি নেতা প্রদীপ পুরোহিত জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাম্ভাব্য লোকসভা আসন হতে চলেছে পুরী। এই কথার সমর্থন মিলেছে পুরীর বিজেপি জেলা সভাপতি প্রভাজন মহাপাত্রের কথাতেও।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

গতকাল সাংবাদিক বৈঠকে প্রদীপ পুরোহিত জানিয়েছেন, এটা কোনও নিয়মের মধ্যে পড়ে না যে পুরী থেকে প্রার্থী হিসাবে দাঁড়াতে পারবেন না নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীর পুরী আসনে প্রার্থী হয়ে লড়ার ৯০% সম্ভাবনা রয়েছে। ওড়িশার মানুষদের প্রধানমন্ত্রী খুব ভালবাসেন এবং প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পুরীর বিশেষ যোগ রয়েছে। তাই তিনি আগামী নির্বাচনে লড়ার জন্য ওড়িশাকে বেছে নিতেই পারেন।

অন্যদিকে, জানা গিয়েছে গত অক্টোবর মাসে ওড়িশার বিজেপি শাখা প্রধানমন্ত্রীকে এ বিষয়ে প্রস্তাব দেয়। আর তারপরেই কেন্দ্রের বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বরা নিয়মিত ওড়িশার রাজনৈতিক পরিস্থিতির বিষয়ে খবর নিতে শুরু করেন। এমনকি, ধর্মেন্দ্র প্রধান, স্মৃতি ইরানি সহ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বরা ওড়িশায় এসে প্রধানমন্ত্রীর প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করে গিয়েছেন। সবমিলিয়ে – নতুন আসনে নরেন্দ্র মোদির লোকসভা নির্বাচনে লড়াই করার ঘোষণা শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট মহল।

Top
error: Content is protected !!