এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এবার কি সিবিআইয়ের জেরার মুখোমুখি হবেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়? হবেন ‘অ্যারেস্ট’? জল্পনা বাড়ালেন নিজেই!

এবার কি সিবিআইয়ের জেরার মুখোমুখি হবেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়? হবেন ‘অ্যারেস্ট’? জল্পনা বাড়ালেন নিজেই!

কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কেউ সরব হলেই গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে সেই সমস্ত বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সিবিআই লেলিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে বিভিন্ন সময়ই সরব হতে দেখা গেছে তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। আর লোকসভা ভোটের আগে কেন্দ্রের তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইকে দিয়ে বিজেপি বিরোধীদের কণ্ঠরোধ করার চেষ্টা করবে বলেও বিভিন্ন সময় আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা মন্ত্রীরা।

আর তৃণমূলের এই আশঙ্কার মাঝেই তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যক্তিগত সহকারি মানিক মজুমদারের বাড়িতে সিবিআইয়ের হানার পরেই উত্তাল হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। জানা যায়, তৃণমূলের মুখপত্র “জাগো বাংলা” পত্রিকার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের অন্যতম স্বাক্ষরকারী ছিলেন মানিক মজুমদার। এদিন সেই ব্যাপারে মানিকবাবুকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই কালীঘাট মন্দিরের সংলগ্ন বাড়িতে হানা দিয়ে ছিলেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকেরা। সেখানে মানিক মজুমদারকে দীর্ঘক্ষন ধরে জেরা করা হয় বলে খবর।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

আর সেই প্রসঙ্গে এদিন ফের কেন্দ্রের শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে দেখা যায় তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। সূত্রের খবর, এদিন কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেট প্রসঙ্গে সমালোচনা করতে গিয়ে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইয়ের বাড়বাড়ন্তের ব্যাপারে মুখ খুলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এই যে আমি ওদের বাজেট নিয়ে প্রতিবাদ করছি, সেকারণে এবার আমাকেও অ্যারেস্ট করতে পারে। কিন্তু তাতে আমার কিছু আসে যায় না। আমি স্বচ্ছতার সঙ্গে রাজনীতি করি”। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, তাহলে কি তৃণমূলের আরও বড় বড় রাঘব-বোয়াল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার জালে ধরা পড়তে পারে এই আশঙ্কা আগেভাগে বুঝেই এহেন মন্তব্য করলেন তৃণমূল নেত্রী!

রাজনৈতিক মহলে যখন এই জল্পনা চরমে উঠছে ঠিক তখনই মানিক মজুমদারকে জেরা করা প্রসঙ্গে সিবিআইয়ের বিরুদ্ধে নিজের সুর চড়া করে তৃনমূল নেত্রী বলেন, “বিরোধীদের শায়েস্তা করতে মোদিবাবু মরিয়া। তাই সিবিআই আধিকারিকদের ডেকে তৃণমূলকে কিভাবে হেনস্থা করা যায় তার পরিকল্পনা চালাচ্ছেন তিনি। আর এজন্যই মানিক মজুমদারকে জেরা করা হচ্ছে। এরপরে হয়ত আমার বাড়ীতে যে চা করে তাকেও ডেকে সিবিআই জেরা করবে”। বস্তুত, মাঝে বেশ কিছুদিন রাজ্যের বিভিন্ন চিটফান্ড কেলেঙ্কারি মামলায় সিবিআইয়ের তদন্তে ঢিলেমি পড়েছিল। লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজতে না বাজতেই ফের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার অতি সক্রিয়তাকে বিরোধীদের কণ্ঠরোধ দমন করার শামিল বলেই মনে করছেন তৃণমূল নেত্রী। আর তাই তো এদিন তাঁর দীর্ঘ চল্লিশ বছরের রাজনৈতিক জীবনের ছায়াসঙ্গী মানিক মজুমদারকে জেরা করা প্রসঙ্গে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে সরব হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!