এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কি হবে বিধানসভা উপনির্বাচনে? সামনে এল এক্সিট পোল! ফের গেরুয়া ঝড়ের ইঙ্গিত

কি হবে বিধানসভা উপনির্বাচনে? সামনে এল এক্সিট পোল! ফের গেরুয়া ঝড়ের ইঙ্গিত



কিছুদিন আগেই মহারাষ্ট্র এবং হরিয়ানার বিধানসভা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। যেখানে 2019 সালে বিজেপি যে ফলাফল করেছিল, সেই ফলাফল থেকে অনেকটাই খারাপ ফলাফল করতে দেখা গেছে ভারতীয় জনতা পার্টিকে। পাশাপাশি সদ্য সমাপ্ত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের তিনটি আসনে বিধানসভা উপনির্বাচন। সেখানেও তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে কার্যত সব আসনেই পর্যুদস্ত হতে হয়েছে গেরুয়া শিবিরকে।

আর এই পরিস্থিতিতে কর্ণাটকে বিধানসভা উপনির্বাচনে কী হবে, তা নিয়ে চলছে জল্পনা। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার কর্নাটকের 15 টি আসনে বিধানসভা উপনির্বাচন হয়েছে। সমসাময়িক বেশ কয়েকটি রাজ্যের ফলাফল দেখে অনেকেই আঁচ করেছিল যে, সেখানে হয়ত পদ্মফুল ফুটবে না। তবে এই নির্বাচনের পর বুথ ফেরত সমীক্ষায় ফের গেরুয়া ঝড়ের ইঙ্গিত পাওয়া গেল সেই কর্নাটকে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

তবে কি হবে, তা 9 ডিসেম্বর ভোট বাক্স খোলার পরেই বোঝা যাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে সামগ্রিকভাবে এক্সিট পোল দেখে অনেকেই আঁচ করতে পারছেন যে, কর্নাটকে এবার পদ্মফুল ফুটতে চলেছে। সুরক্ষিত থাকতে চলেছে মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পার মুখ্যমন্ত্রীত্ব। সূত্রের খবর, সি-ভোটার এক্সিট পোলের মতে, যে 15 টি আসনে এখানে বিধানসভা উপনির্বাচন হয়েছে, তার মধ্যে বিজেপি 12, কংগ্রেস 3 এবং জেডিএস 2 টি আসন পেতে পারে।

অন্যদিকে পাবলিক টিভির বুথ ফেরত সমীক্ষা অনুযায়ী, বিজেপি 8 থেকে 10, কংগ্রেস 3 থেকে 5 এবং জেডিএস 1 থেকে 2 টি আসন পেতে পারে। আর জনপ্রিয় এই দুটি সমীক্ষাতেই বিজেপি ঝড়ের ইঙ্গিত পাওয়ায় গেরুয়া শিবির কর্মী সমর্থকরা ব্যাপক উজ্জীবিত হতে শুরু করেছে। বস্তুত, মুখ্যমন্ত্রী বিএসসি ইয়েদুরাপ্পাকে যদি সরকার টেকাতে হয়, তাহলে এই 15 টি আসনের মধ্যে ছটি আসুন নিজেদের দখলে রাখতে হবে।

কিন্তু সেদিক থেকে বুথ ফেরত সমীক্ষা অনুযায়ী 12 টি আসন বিজেপির দখলে যাবে বলে উঠে আসছে। আর যদি এই সম্ভাবনাই সত্যি হয়, তাহলে বড়সড় স্বস্তি পেতে পারে ভারতীয় জনতা পার্টি। তবে কি হবে, তা ভোটের বাক্স খোলার পরেই বোঝা যাবে। তাই এখন কর্নাটকে এই 15 টি আসনের বিধানসভা উপনির্বাচনের ফলাফলের দিকেই তাকিয়ে রয়েছেন সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!