এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > শেষ মুহূর্তের এক্সিট পোলে মহাচমক! গেরুয়া শিবিরের চিন্তা বাড়িয়ে বদলে যাচ্ছে সব সমীকরণ?

শেষ মুহূর্তের এক্সিট পোলে মহাচমক! গেরুয়া শিবিরের চিন্তা বাড়িয়ে বদলে যাচ্ছে সব সমীকরণ?

গত ২১ তারিখ মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানার বিধানসভা সাধারণ নির্বাচনের পাশাপাশি গোটা দেশের ১৭ টি রাজ্যের ২ লোকসভা ও ৫১ বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেদিন সন্ধ্যেবেলায় নির্বাচন কমিশনের বাধা নিষেধ উঠে যেতেই একে একে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ও সংস্থা তাদের এক্সিট পোল সামনে নিয়ে আসতে শুরু করে। প্রতিটা এক্সিট পোলেই আসনসংখ্যার তারতম্য থাকলেও, দেখা যাচ্ছিল মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানা দু জায়গাতেই বিপুল সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে বিজেপির ক্ষমতায় ফেরার ইঙ্গিত।

কিন্তু, গতকাল সন্ধ্যেবেলা ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিস মাই ইন্ডিয়া যৌথভাবে একটি বুথ ফেরত সমীক্ষা সামনে নিয়ে আসে। আর সেখানেই রয়েছে মহাচমক! প্রায় সব এক্সিট পোলের বিপরীত মেরুতে হেঁটে ওই শেষ মুহূর্তের করা সমীক্ষায় দাবি করা হয়েছে – হারিয়ানাতে ক্ষমতার বাইরে চলে যেতে পারে বিজেপি। ওই সমীক্ষা অনুযায়ী, হারিয়ানাতে বিজেপি পেতে পারে ৩২-৪৪ টি আসন। এর পাশাপাশিই, ওই সমীক্ষায় আরও দাবি করা হয়েছে, হারিয়ানাতে কংগ্রেস আশাতীত ফল করে ৩০-৪২ টি আসন ছিনিয়ে নিতে পারে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এছাড়াও, ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিস মাই ইন্ডিয়ার যৌথ সমীক্ষায় দাবি করা হয়েছে হারিয়ানাতে গতবারের থেকে ভালো ফল করবে লোকদল। তবে, সবথেকে বড় চমক রয়েছে সরকার গড়ার চাবিকাঠি নিয়ে। ওই সমীক্ষা অনুযায়ী, দুষ্মন্ত চৌটালার নেতৃত্বাধীন জেজেপি পেতে পারে ৬ থেকে ১০টি আসন। হারিয়ানাতে মোট বিধানসভা আসনের সংখ্যা ৯০, সরকার গড়তে লাগে ন্যূনতম ৪৬ জন বিধায়কের সমর্থন। কিন্তু ওই সমীক্ষা অনুযায়ী – বিজেপি বা কংগ্রেস কেউই সেই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে না।

আর তাই ওই সমীক্ষায় দাবী করা হয়েছে, হারিয়ানাতে ‘কিং মেকার’ হয়ে উঠতে পারেন দুষ্মন্ত চৌটালা। তিনি কংগ্রেসকে সমর্থন করলেই, বিজেপির কাছ থেকে হরিয়ানা ছিনিয়ে নিতে পারে বিরোধীরা। অন্যদিকে, আরেকটি সম্ভাবনাও উস্কে দিয়েছে ওই সমীক্ষা। সেখানে দাবী করা হয়েছে, প্রয়োজনে হারিয়ানাতেও ‘কুমারস্বামী-মডেল’ হতে পারে। অর্থাৎ, বিজেপিকে আটকাতে পিছন থেকে সমর্থন করে দুষ্মন্ত চৌটালাকে মুখ্যমন্ত্রী করে দিতে পারে কংগ্রেস।

অর্থাৎ, কর্ণাটকের কুমারস্বামীর মতোই ‘থার্ড বয়’ হয়েও মুখ্যমন্ত্রী হয়ে যাবেন দুষ্মন্ত চৌটালা। আর একক বৃহত্তম দল হয়েও ক্ষমতার বাইরে থাকতে হবে বিজেপিকে। চমক জাগানো এই সমীক্ষা কতটা সঠিক তা প্রমান হয়ে যাবে আগামী কাল সকাল ৮ তা থেকে ভোটগণনা শুরু হলেই। তবে, বিভিন্ন সংস্থার সমীক্ষা যেমন কংগ্রেসকে ধর্তব্যের মধ্যেই আনছিল না – এই নতুন সমীক্ষা কিন্তু অনেক সমীকরণ বদলে দেওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে। ফলে, কংগ্রেস শিবির এখন থেকেই বিভিন্ন রকম রাজনৈতিক সমীকরণের জন্য নিজেদের পরিকল্পনা সাজাতে শুরু করে দিয়েছে – সে কথা বলাই বাহুল্য।

আপনার মতামত জানান -
Top