এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > একযোগে বিপাকে দেশের 200 প্রাক্তন সাংসদ? তিন দিনের মধ্যে বন্ধ হতে চলেছে বিদ্যুৎ থেকে জল!

একযোগে বিপাকে দেশের 200 প্রাক্তন সাংসদ? তিন দিনের মধ্যে বন্ধ হতে চলেছে বিদ্যুৎ থেকে জল!

একটা সময় সাংসদের মেয়াদ না থাকার জন্য অধীর চৌধুরীর বাসভবন থেকে তাঁর সমস্ত জিনিসপত্র বের করে দেওয়া হয়েছিল। যা নিয়ে জাতীয় রাজনীতি উত্তাল হতে দেখা গিয়েছিল। এবার কি ফের সেরকম কিছু ঘটতে চলেছে! বস্তুত, সম্প্রতি দেশের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। আর এই নির্বাচনে না দাঁড়ানোয় বা জয়লাভ না করায় অনেকেই প্রাক্তন সাংসদ হয়ে গেছেন।

আর হিসেব মত জনপ্রতিনিধিরা প্রাক্তন হয়ে গেলে তাঁদের বাংলো তাঁদেরকে ছেড়ে দিতে হয়। তবে এখনও পর্যন্ত দেশের প্রায় অনেক প্রাক্তন সাংসদই তাঁদের সরকারি আবাসন ছাড়েননি বলে অভিযোগ উঠেছে। সূত্রের খবর, প্রায় ২০০ জন প্রাক্তন সাংসদকে নিজেদের বাংলো আগামী ৭ দিনের মধ্যে খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দিলেন হাউসিং কমিটির চেয়ারম্যান সি আর পাতিল।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আর এই ঘটনাতেই এবার শুরু হয়েছে চাঞ্চল্য। প্রসঙ্গত, সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনের পর ফের দ্বিতীয়বার বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে কেন্দ্রের ক্ষমতা দখল করেছে মোদি সরকার। ফলে পূর্ববর্তী ষোড়শ লোকসভা ভেঙে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। আর এরপরই সদ্য প্রাক্তনী সাংসদদের নির্দেশ দেওয়া হয় যে, তাঁরা যাতে অবিলম্বে তাঁদের বাংলো ছেড়ে দেন। আর এই ব্যাপারে যে আগের সব জামানার মত আর নরম নীতি নেওয়া হবে না – তাও কার্যত স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে।

এমনকি নিজেদের আবাসন খালি করবার জন্য এর আগে তিন দিনের মধ্যে বিদ্যুৎ এবং জল সরবরাহ বন্ধ করার নির্দেশ দিলেও নিজেদের বাংলো খালি করেননি বেশিরভাগ সাংসদ। আর এবার আগামী সাত দিনের মধ্যে দেশের সমস্ত প্রাক্তন সাংসদদের, যাঁরা এখনও তাঁদের আবাসন ছাড়েননি, তাঁদের আবাসন ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হল – আর এবার তা না হলে জল থেকে বিদ্যুৎ সব সংযোগই কেটে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে হাউসিং কমিটির পক্ষ থেকে প্রাক্তন সাংসদদের উদ্দেশ্যে এই নির্দেশ দেওয়া হলেও এখন তাঁরা এই ব্যাপারে ঠিক কি পদক্ষেপ নেন, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!