এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > এবার কি একেবারেই বন্ধ হতে চলেছে সরকারি কর্মীদের ডিএ?

এবার কি একেবারেই বন্ধ হতে চলেছে সরকারি কর্মীদের ডিএ?

Priyo Bandhu Media

রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ডিএ নিয়ে ক্ষোভ দীর্ঘদিনের। বাম আমলে তাও কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের থেকে ১০-১২% মহার্ঘভাতা বাকি থাকত কিন্তু বর্তমান তৃণমূল সরকারের আমলে তা বাড়তে বাড়তে ৫৪% এর পার্থক্য হয়ে দাঁড়ায়, যা নিয়ে ক্ষোভ চরমে পৌঁছায়। এমনকি আদালতে মামলা পর্যন্ত হয়, সেই মামলা চলাকালীনই মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন এই জানুয়ারী থেকে অতিরিক্ত ১৫% মহার্ঘভাতা দেবেন, কিন্তু তাতেও ক্ষোভ কমছে না রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের, কেননা এখনো বাকি ৩৯% মহার্ঘভাতা। এই পরিস্থিতিতে আদালতের দিকে তাকিয়ে ছিলেন সকল রাজ্য সরকারি কর্মচারী, যদি আদালতের রায়ে পাওয়া যায় বাকি মহার্ঘভাতা তাড়াতাড়ি।
কিন্তু সেই আদালতেই নতুন এক মামলার গেড়োয় মহার্ঘভাতা বস্তুটিরই অবলুপ্তি ঘটতে চলেছে। দেশে যখন বেকারদের জন্য ভাতা দেওয়া হচ্ছে না, তখন কেন মহার্ঘ ভাতা দেওয়া হবে – প্রশ্ন তুলে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করলেন আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকার। তাঁর বক্তব্য, ভারতীয় সংবিধানে কোথাও ডিএ দেওয়ার কথা বলা নেই, ৫৯ ধারায় এই বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছুই বলা হয়নি, ফলে সরকারি কর্মীদের ডিএ দেওয়ার বিষয়টি ভেবে দেখা উচিত। আর এই মামলায় শুধুমাত্র রাজ্য সরকারি কর্মীই নয় প্রশ্ন তোলা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের নিয়েও। আগামীকাল হাইকোর্টে মহার্ঘভাতা মামলার শুনানি রয়েছে, সেই মামলার সাথেই ডিএ বিরোধিতা করে দায়ের হওয়া মামলা জুড়ে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। ফলে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের হতাশ করে ডিএ মামলার জটিলতা বৃদ্ধির আশঙ্কার, পাশাপাশি ডিএ ব্যাপারটাও অবলুপ্ত হয়ে যেতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট মহল মনে করছেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!