এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > করোনা থেকে মুক্তি? ওষুধ আবিষ্কার কি হতে চলেছে? পিটার্সবার্গের বিজ্ঞানীদের দাবি ঘিরে জল্পনা

করোনা থেকে মুক্তি? ওষুধ আবিষ্কার কি হতে চলেছে? পিটার্সবার্গের বিজ্ঞানীদের দাবি ঘিরে জল্পনা


করোনা মহামারী নিয়ে মানুষের সব থেকে বড় ভয় ছিল, এর কোনো প্রতিষেধক নেই। যার ফলে চিকিৎসা করা গেলেও, রোগের ওষুধ না থাকায় প্রচুর মানুষের মৃত্যু মিছিল দেখতে হয়েছে বিশ্ববাসীকে। তবে এবার বড়সড় খবর পাওয়া গেল। সূত্রের খবর, পিটার্সবার্গের স্কুল অফ মেডিসিনের বৈজ্ঞানিকরা ইতিমধ্যেই করোনা ভাইরাস আটকানোর জন্য ভ্যাকসিন তৈরি করে ফেলেছেন।

জানা গেছে, পিটার্সবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইউপিএমসির সহযোগিতায় এই কাজ চালানো হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ল্যানসেট ইবায়োমিডিসিনের একটি জার্নালে এই রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। কিন্তু সত্যিই কি এটা করোনার প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করতে সক্ষম হবে? গবেষকদের একাংশের দাবি, ইঁদুরের শরীরে এর কার্যকারিতা দেখে মনে করা হচ্ছে যে, করোনা আক্রান্ত মানুষের শরীরে একইভাবে এই ভ্যাকসিন অ্যান্টিবডি তৈরি করবে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে পিটর্সবার্গ স্কুল অব মেডিসিনের সার্জারি বিভাগের গবেষক অধ্যাপক অ্যান্দ্রিয়া গ্যামবোট্টো বলেন, “আগের দুটো মহামারীর ভয়াবহতা আমরা দেখেছি। তখনও ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা হয়েছিল। সার্স-কভ 2 ভাইরাসের সঙ্গে সার্স ও মার্স ভাইরাসের মিল হয়েছে। তাই এই নতুন ভাইরাসের ভ্যাকসিন ক্যানডিডেট কেমন হবে, সেটা অনুমান করা গিয়েছে।”

আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যেই মানুষের উপর এই ভ্যাকসিনের প্রয়োগ হতে পারে বলে ওই সংস্থা সূত্রে জানা গেছে। সব থেকে বড় কথা, ওই সংস্থার দাবি অনুযায়ী, ল্যাবেই এমন ভাইরাল প্রোটিন বানানো হয়েছে যা দেহকোষে শক্তিশালী অ্যান্টিবডি তৈরি করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে। শুধু কোভিড-১৯ নয়, আগামী দিনে এমনই কোনও সংক্রামক ভাইরাসঘটিত রোগকে রুখতেও এই ভ্যাকসিন কাজে আসতে পারে।

সব মিলিয়ে গোটা বিশ্ব যখন করোনা মহামারীর সংকটে, তখন এই সংস্থা প্রতিষেধক বের করে কতটা সাফল্য পায়, তার দিকেই নজর থাকবে সকলের। চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাস এখন গোটা বিশ্বের কাছে ত্রাস! আমেরিকা, ইংল্যান্ড, ইতালি, স্পেন, জার্মানির মত প্রথম শ্রেণীর দেশগুলিও – এই মারণ ভাইরাসের আক্রমণে মৃত্যু মিছিল দেখছে। তাই সমবেত বিশ্বের এখন একটাই প্রার্থনা – যত তাড়াতাড়ি সম্ভব করোনার ওষুধ যেন আবিষ্কৃত হয়ে যায়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!