এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > তিন জেলা সাত বিধায়ক – দলবদলের গুঞ্জন তীব্র হচ্ছে বঙ্গের রাজনীতির অঙ্গনে

তিন জেলা সাত বিধায়ক – দলবদলের গুঞ্জন তীব্র হচ্ছে বঙ্গের রাজনীতির অঙ্গনে

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি ডাক দিয়েছিল কংগ্রেস-মুক্ত ভারতের, সে কাজে গেরুয়া শিবির কতটা সফল হয়েছে তর্কযোগ্য বিষয় হলেও – কংগ্রেস-মুক্ত বাংলা করার দিকে তীব্র গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। একের পর এক কংগ্রেস বিধায়ক হাত-চিহ্ন ছেড়ে নাম লেখাচ্ছেন শাসক-শিবিরে। অন্যদিকে এই দলবদলে মুখ্য ভূমিকা নেওয়া তৃণমূল কংগ্রেসের তরুণ তুর্কি শুভেন্দু অধিকারী হুঙ্কার ছাড়ছেন আরো কংগ্রেস বিধায়কদের দলে নেওয়ার। আর তাই কে যে তৃণমূলে যাচ্ছেন আর কে যে এখনো কংগ্রেস শিবিরে পরে থাকছেন তা নিয়ে তৈরী হয়েছে তীব্র জল্পনা। আপাতত বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবর থেকে জানা যাচ্ছে চার জেলার সাত বিধায়ক খুব তাড়াতাড়িই নাকি শাসক-শিবিরে নাম লেখাতে চলেছেন। এঁরা হলেন –

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

১. সুনীলচন্দ্র তিরকে (ফাঁসিদেওয়া, দার্জিলিং)
২. সময় মুখার্জী (রতুয়া, মালদা)
৩. সাবিনা ইয়াসমিন (মোথাবাড়ি, মালদা)
৪. মইনুল হক (ফারাক্কা, মুর্শিদাবাদ)
৫. আখরুজ্জামান (রঘুনাথগঞ্জ, মুর্শিদাবাদ)
৬. কমলেশ চ্যাটার্জী (ভরতপুর, মুর্শিদাবাদ)
৭. আবু তাহের খান (নওদা, মুর্শিদাবাদ)

তবে এই দলবদল নিয়ে কেউ এখনো সরকারিভাবে কোনো মুখ খোলেননি, বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের ভিত্তিতে (সেই সব খবরের স্ক্রিনশট ও পেপার কাটিং প্রামাণ্য নথি হিসাবে রাখা আছে) এই তালিকা দেওয়া হল। যদিও এই খবরের সত্যতা বা সূত্র সম্পর্কে ওই সমস্ত সংবাদমাধ্যমে কিছু লেখা নেই, প্রিয়বন্ধু বাংলার তরফেও এই খবরের সত্যতা যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণরূপে ওই সমস্ত সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের পরিপ্রেক্ষিতে করা, কোনোভাবেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!