এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > দিল্লিতে বড় বিস্ময় – কথা হয়েও পড়ল না ‘দু উইকেট’ – জেনে নিন কারণ ও বাস্তব পরিস্থিতি

দিল্লিতে বড় বিস্ময় – কথা হয়েও পড়ল না ‘দু উইকেট’ – জেনে নিন কারণ ও বাস্তব পরিস্থিতি

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া এক্সক্লুসিভ – গতকালই এক প্রতিবেদনে আমরা জানিয়েছিলাম, গেরুয়া শিবিরের বেশ কিছু দাপুটে নেতার সৌজন্যে জানা গিয়েছে – গতকাল দিল্লিতে আবার নাকি দু-দুটো উইকেট পড়তে চলেছে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় ও মুকুল রায়ের হাত ধরে। তবে, এই দুজন হেভিওয়েট বিধায়ক হলেও, শাসকদলের নন – এই দুজনের মধ্যে একজনকে তো আবার তাঁর দল লোকসভায় প্রার্থীও করতে চান। কিন্তু, সেইসব কিছুকে না দেখে – রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরোধিতায় ও তাদের ক্ষমতাচ্যুত করার সুযোগের ভিত্তিতে – গেরুয়া শিবিরকেই ‘নেক্সট ডেস্টিনেশন’ হিসাবে দেখে তাঁরা গতকাল বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নিতে চলেছিলেন।

কিন্তু, বাস্তবে দেখা যায় গতকাল দিল্লিতে কোনো যোগদানই হয় নি। ফলে, সন্ধ্যে থেকেই দপ্তরে ফোনের পাশাপাশি পার্সোনাল মেসেজেও উপচে পরে কৌতূহল। একদল পাঠকের জিজ্ঞাস্য কি কারণে হল না এই যোগদান, কিন্তু, আরেকদল পাঠকের তো রীতিমত ধমক-চমক! আমরা নাকি এক বিশেষ রাজনৈতিক দলের প্রচারের উদ্দেশ্যে মিথ্যা হাওয়া তোলার জন্য এই ধরনের বিভ্রান্তিমূলক খবর প্রকাশ করছি। প্রত্যেকের কাছেই আমাদের বিনীত নিবেদন ছিল – এইসব দলবদলে না আমাদের কোনো হাত আছে, না সেখানে হাত দেওয়ার কোনো ক্ষমতা আছে, না তার কোনো উদ্দেশ্য আছে। একটা নিরপেক্ষ সংবাদমাধ্যম হিসাবে আমাদের কাজ সংবাদ সংগ্ৰহ করে তা পাঠকের কাছে পৌঁছে দেওয়া, আমরা শুধুমাত্র সেটা করারই চেষ্টা করছি।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এরপরেই, আমরা বিভিন্ন সূত্র থেকে খবর সংগ্রহের চেষ্টা করি – কি কারণে এই যোগদান হল না বা আদৌ তা হবে কিনা। গতকাল গভীর রাতে পাওয়া শেষ খবর অনুযায়ী – গতকাল এই যোগদান না হওয়ার মূল কারণ হচ্ছে বিজেপির প্রার্থী তালিকা নিয়ে প্রায় সারাদিনই কৈলাশ বিজয়বর্গীয় ও মুকুল রায় ব্যস্ত ছিলেন। প্রথম দু পর্যায়ের পাঁচজনের নাম চূড়ান্ত হয়ে গেলেও, বাকি ৩৭ টি আসনের মধ্যে প্রায় ২০-২২ টি নাম নিয়ে এখনো কোনো চূড়ান্ত ফয়সালা হয় নি। সেখানে এই নিয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিটির সামনে রীতিমত যুক্তি-তর্কের প্রবল লড়াই চলছে বঙ্গ-নেতৃত্বের, যাতে কোনো কেন্দ্রের ক্ষেত্রে নাকি বিজেপির তরফে ‘বেস্ট ক্যান্ডিডেট’ দেওয়া যায়। আর তাই যে সময়ে সাধারণত এই সব যোগদান হয়ে থাকে, সেই দুপুর দুটো বা আড়াইটে নাগাদ কোনো সময়ই বার করতে পারেননি এই দুই নেতা।

সুতরাং পরিকল্পনা করা হয়, এই যোগদানপর্ব সন্ধ্যের দিকে করা হবে। কিন্তু, গতকাল সন্ধ্যেবেলাতে দুর্ভাগ্যবশতঃ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী তথা গোয়ার বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পরিক্করের মৃত্যু হয়ে যায়। স্বাভাবিকভাবেই, দলীয় নেতার মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত হয়ে বিজেপি কেন্দ্রীয় কমিটি সন্ধ্যের পর সমস্ত রাজনৈতিক কর্মসূচি স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। ফলে, গতকাল আর সেই যোগদান হতে পারে নি – কিন্তু সংশ্লিষ্ট ওই দুই নেতা আপাতত দিল্লিতেই আছেন – আজ দুপুরে তাঁরা পা রাখতে চলেছেন গেরুয়া শিবিরে। বিজেপির একটি সূত্র, আরও জানিয়েছে, ওই দুই বিধায়কের একজনকে লালমাটির দেশের কোনও একটি কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করার ভাবনা চিন্তাও চলছে। সবমিলিয়ে, গতকাল না হলেও আজ ওই দুই নেতা গেরুয়া শিবিরে পা রাখতে চলেছেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!