এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > জোরদার লড়াই বাম ও বিজেপিতে, ২১ টি আসনের ফল বলে দেবে কার দখলে ত্রিপুরা

জোরদার লড়াই বাম ও বিজেপিতে, ২১ টি আসনের ফল বলে দেবে কার দখলে ত্রিপুরা

গত ১৮ ই ফেব্রুয়ারী ত্রিপুরাতে ভোটগ্রহণ হয়ে গেলেও ভোটগণনা হবে আগামী ৩ রা মার্চ, মেঘালয় ও নাগাল্যান্ডের সাথে একসাথে। ৬০ আসন বিশিষ্ট ত্রিপুরা বিধানসভার ৫৯ টি আসনে ভোটগ্রহণ হয়েছে, শুধুমাত্র চড়িলাম কেন্দ্রের বাম প্রার্থীর আকস্মিক মৃত্যুতে সেখানে আগামী ১২ ই মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ভোটগ্রহণ হয়ে যাওয়ায় এবং ফলাফল বের হতে দেরি থাকায় ত্রিপুরা নিয়ে যথেষ্ট আলোচনা হচ্ছে রাজনৈতিক শিবিরগুলোতে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কাঁটাছেঁড়ায় উঠে আসছে বিভিন্ন সমীকরণ। তবে লাখ টাকার প্রশ্ন – কি হবে এবার ত্রিপুরায়? গেরুয়া শিবিরের হাত ধরে পরিবর্তন, নাকি মানিক সরকারের হাত ধরে অষ্টম বামফ্রন্ট সরকারের প্রত্যাবর্তন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলির অন্দরমহলের চর্চায় উঠে আসছে, সেখানে এবার মূল লড়াই বামফ্রন্ট ও বিজেপির মধ্যেই, অন্য দুই বিরোধী দল কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেস সেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও নির্বাচনে সেভাবে প্রভাব ফেলতে পারবে না। রাজনৈতিক দলগুলির অসমর্থিত সূত্রের খবর এবারের নির্বাচনে বামফ্রন্টের ২৬ টি আসন জয় ‘নিশ্চিত’, অন্যদিকে বিজেপি নাকি ‘নিশ্চিতভাবে’ জিততে চলেছে ১২ টি আসনে। কিন্তু বাকি ২১ টি আসনের লড়াই নিয়ে বাম ও বিজেপি কোনো শিবিরই নিশ্চিত নয়, ওই আসনগুলি কার্যত ৫০-৫০ হয়ে আছে বলে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলির অভ্যন্তরীণ হিসাব বলছে। ফলে এই মুহূর্তে নিশ্চিত করে কেউই দাবি করতে পারছে না কে দখল করতে চলেছে ত্রিপুরার মসনদ। বাম শিবিরের দাবি, ‘যত খারাপ ফলই’ হোক না কেন, কিছুতেই ৪০ এর নীচে আসন সংখ্যা নামবে না। অন্যদিকে বিজেপি শিবিরের দাবি ৩৩-৩৭ টি আসন জিতে তারাই এবার আসতে চলেছে ত্রিপুরার ক্ষমতায়। বাস্তবে কি হবে তা বোঝা যাবে আগামী ৩ রা মার্চ ইভিএম খুললে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!