এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > কারা হতে চলেছেন পঞ্চায়েতে তৃণমূল প্রার্থী? ঘোষণা করলেন সুব্রত বক্সি

কারা হতে চলেছেন পঞ্চায়েতে তৃণমূল প্রার্থী? ঘোষণা করলেন সুব্রত বক্সি

সংরক্ষনের জেরে এবার আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে টিকিটের জন্য চূড়ান্ত হাহাকার রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসে। এই নিয়ে রোজই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের খবর ভেসে আসছে। এমনকি পরিস্থিতি সামাল দিতে খোদ দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হাতে ব্যাটন তুলে নিতে হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি বড় ঘোষণা করলেন। তিনি জানালেন, যারা ভালোবেসে দল করছেন, সেইসব পুরনো কর্মীরাই আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটে প্রার্থী তালিকায় অগ্রাধিকার পাবেন। দল সবার আগে গুরুত্ব দেবে তাঁদেরই, যাঁরা পদের জন্য দল করে না, ভালোবেসে দল করে। দলের প্রতি আন্তরিকতাই হবে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে টিকিট পাওয়ার চাবিকাঠি। কিছু নেতা-কর্মী আছেন, যাঁরা শুধু পদের লোভে পার্টি করে। কিন্তু আমরা তাঁদেরকে স্পষ্ট বার্তা দিতে চাই।

হাওড়ায় তৃণমূলের পঞ্চায়েত সম্মেলন থেকে সুব্রত বক্সি দলের নেতা-কর্মীদের সতর্ক করে বলেন, গোষ্ঠীকোন্দল বরদাস্ত করা হবে না। তৃণমূল চায় না ভোটের টিকিট নিয়ে গোষ্ঠীকোন্দল হোক। তার কারণ, এবারের ভোট শুধু গ্রামের যুদ্ধ নয়, এবারের ভোট ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের সেমিফাইনাল। বিজেপিকে ক্ষমতা থেকে হটাতে হবে। তার আগে পঞ্চায়েতে হবে লোকসভার মহড়া। সেই লক্ষ্য নিয়েই এবার নামতে হবে পঞ্চায়েত ভোটে। পঞ্চায়েত ভোটে জেতার পাশাপাশি এই ভোট থেকেই বিজেপিকে বিদায় বার্তা পাঠাতে হবে। তাই দলাদলি বন্ধ করে একযোগে ভোট-যুদ্ধ ঝাঁপিয়ে পড়ার বার্তা দেন তিনি। আগে থেকে সতর্ক করে দেওয়া হয় টিকিট নিয়ে লড়াই করে বিরোধী দলে যোগ দিয়ে বা নির্দল হয়ে দাঁড়িয়ে ভোট কাটাকাটি করে বিরোধীদের সুযোগ করে দেবেন না। রাজ্যের মানুষের পূর্ণ আস্থা রয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি। সেই বিশ্বাসের মূল্য দিতে হবে নিচুতলার নেতা-কর্মীদের। বিরোধীদের হাত শক্ত করে রাজ্যের মানুষকে অপমান করবেন না।

Top
error: Content is protected !!