এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > কলকাতার নতুন মেয়র হতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী ঘনিষ্ঠ রাজ্যের এই গুরুত্ত্বপূর্ন মন্ত্রী?

কলকাতার নতুন মেয়র হতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী ঘনিষ্ঠ রাজ্যের এই গুরুত্ত্বপূর্ন মন্ত্রী?

কলকাতার বর্তমান মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় নারদ কাণ্ড ও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ব্যতিব্যস্ত। বিশেষ করে তাঁর ব্যক্তিগত জীবনে, স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ‘গার্হস্থ্য হিংসা’ নিয়ে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা ও তার পরবর্তীকালে ‘বিশেষ বন্ধু’ হিসাবে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম উঠে আসা নিয়ে যে পরিমান খবর মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে তাতে ভাবমূর্তি নিয়ে বেশ বিব্রত ডঃ তৃণমূল কংগ্রেস। এই অবস্থায় গত সপ্তাহেই জল্পনা চরমে ওঠে যে কলকাতা মেয়রের পদ থেকে পদত্যাগ করতে পারেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু পরবর্তীকালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বয়ং মেয়রকে ফোন করে কাজ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়ায় সেই মুহূর্তে ধামাচাপা পরে তাঁর পদত্যাগ বিতর্ক।

কিন্তু তারপরেও, নতুন করে শোভনবাবু নিজে বা তাঁর বান্ধবী বৈশাখীদেবী যেভাবে প্রকাশ্যে মিডিয়ায় ‘তাঁদের সম্পর্ক’ নিয়ে মুখ খুলেছেন তা মোটেই ভালোভাবে নেয় নি তাঁর দল বলে সূত্রের খবর। এই অবস্থায় কলকাতার মেয়র পদ থেকে শোভনবাবুর অপসারণ নিয়ে নতুন করে জল্পনা ছড়ায়। এর মধ্যেই বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত খবর থেকে জানা যাচ্ছে, কলকাতার নতুন মেয়র হওয়ার দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ যুবকল্যাণ ও ক্রীড়া মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। এমনিতেই মুকুল রায়ের দলত্যাগের পর দলে তাঁর গুরুত্ত্ব অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে, যেকোনো জায়গায় দলীয় সমস্যা মেটাতে তাঁর উপরেই সবথেকে বেশি ভরসা করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফলে কলকাতার মেয়র হিসাবে এর আগে দেবাশীষ কুমার বা অতীন ঘোষের নাম উঠে এলেও, আপাতত সবাইকে পিছনে ফেলে অরূপবাবুই মেয়র পদের জন্য সবার আগে বলে খবরে প্রকাশ। তবে এই নিয়ে এখনো পর্যন্ত তৃণমূল কংগ্রেস বা অরূপবাবুর নিজের কাছ থেকে কোনো সরকারি বিবৃতি পাওয়া যায় নি, তাই সমগ্র ব্যাপারটা জল্পনার স্তরেই আছে।

Top
error: Content is protected !!