এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > তিন নতুন রাজ্য হাতে – কিন্তু, কে হচ্ছেন নতুন মুখ্যমন্ত্রী? আজ মহাবৈঠকে কংগ্রেসের হেভিওয়েট শীর্ষনেতারা

তিন নতুন রাজ্য হাতে – কিন্তু, কে হচ্ছেন নতুন মুখ্যমন্ত্রী? আজ মহাবৈঠকে কংগ্রেসের হেভিওয়েট শীর্ষনেতারা

বিজেপিকে জোর ধাক্কা দিয়ে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, ছত্তিশগড়ে ক্ষমতায় আসতে চলেছে কংগ্রেস। মধ্যপ্রদেশের শিবরাজ সিংহ চৌহ্বান, রাজস্থানের বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়া ও ছত্তিশগড়ের রমন সিং – বিজেপির এই তিন মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ার বদল হতে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে এদিন রাজস্থানের সরকার গঠনের দাবী জানালেন সচীন পাইলট, অশোক গেহলটরা।

আর আজ, বেলা ১১ টায় সব জয়ী কংগ্রেস প্রার্থীরা বৈঠকে বসলেন। এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে, কে বেনুগোপালকে ইতিমধ্যেই রাজ্যে চিঠি পাঠিয়েছেন জাতীয় কংগ্রেস সভাপতি। প্রত্যেকে জয়ী প্রার্থীর মত নিয়ে রাহুল গান্ধীকে জানাবেন বেনুগোপাল বলে জানা গেছে। অন্যদিকে, আজ সন্ধ্যেতেই আরো একটি কোর কমিটির বৈঠক হবে। সেখানেই রাজস্থানের আগামী মুখ্যমন্ত্রী পদে কে বসবেন সে ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেই জানা যাচ্ছে দলীয় সূত্রের খবরে।

ভোটের বেশ কয়েক মাস আগে থেকেই প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়ায় উত্তাল ছিল মরুরাজ্য। খোদ মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়ার বিরুদ্ধেও রাজ্যবাসীর মনে ক্ষোভ তৈরি হয়েছিল। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই বিজেপি মুক্ত রাজস্থান গড়ার ডাক দিয়েছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি শচীন পাইলট। গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মোকাবিলা করে বিজেপির পাঁচ বছরের শাসনকালেই ইতি টানতে সক্ষম হলেন শচীন পাইলট, অশোক গেহলটরা। তবে মসনদ দখলের ম্যাজিক ফিগার থেকে এখনো একটি আসন দূরে রয়েছে রাজস্থানের হাত শিবির।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না – তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

ভোটের ফলাফল সামনে আসতেই দেখা গিয়েছে, রাজ্যের ১৯৯ টি বিধানসভা আসনের (একটি আসনে প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে ভোটগ্রহণ স্থগিত আছে) মধ্যে ৯৯ টি দখল করেছে কংগ্রেস। ৭৩ টি আসন পেয়েছে বিজেপি। এছাড়া বসপা ৬ টি এবং অন্যান্যরা ২১ টি আসন পেয়েছে। তাই ম্যাজিক ফিগার ‘১০০’- তে পৌঁছাতে খুব একটা বেগ পেতে হবে না কংগ্রেসের – এমনটা মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এই প্রেক্ষিতে রাজ্যে আগামী মুখ্যমন্ত্রী কে হতে চলেছেন সে সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য, কংগ্রেসের জয়ী প্রার্থীদের এই বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। রাজস্থানের মসনদ দখল কেবল সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করছেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী। রাজস্থানের পাশাপাশি ছত্তিশগড় এবং মাধ্যপ্রদেশেও মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে একাধিক নাম ভেসে উঠছে। তবে – ওই দুই রাজ্যেও রাজস্থান মডেল নেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!