এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মুখ নিয়ে বড়সড় তথ্য সামনে নিয়ে এলেন হেভিওয়েট কেন্দ্রীয় নেতা

বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মুখ নিয়ে বড়সড় তথ্য সামনে নিয়ে এলেন হেভিওয়েট কেন্দ্রীয় নেতা

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বাংলায় ভালো ফল করেছে। আর বঙ্গ বিজেপির এই ভালো ফলাফলের পেছনে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষেরই অনবদ্য ভূমিকা রয়েছে বলে দাবি করেছিল রাজনৈতিক মহল। যার পরেই লোকসভায় বাংলায় ভালো ফলাফল করার পর আগামী 2021 সালে বিধানসভা নির্বাচনে যাতে বিজেপি বাংলায় ভালো ফলাফল করে, তার জন্য দলের সংগঠনকে আরও মজবুত করার পরামর্শ দেওয়া হয় শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে।

কিন্তু বিজেপি আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় ভালো ফল করার ব্যাপারে আত্মপ্রত্যয়ী হলেও বিধানসভা নির্বাচনে কোনো একজন ব্যক্তিকে সামনে রেখে পশ্চিমবাংলায় এগোতে হয়। ফলে সেদিক থেকে তৃণমূলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধান হলেও বিজেপির এই বাংলায় ভালো ফল করবার জন্য মুখ কে! তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই দলের অন্দরে নানা গুঞ্জন তৈরি হয়েছিল।

অনেকেই ভেবেছিলেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের হাত ধরেই বাংলায় লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে অনেকটাই বিপাকে ফেলেছে গেরুয়া শিবির। আর তাই সেই দিলীপ ঘোষকে মুখ হিসেবে রেখেই আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় লড়াই করবে তারা। কিন্তু না, এই সমস্ত জল্পনাকে উড়িয়ে দিয়ে বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মুখ নিয়ে নয়া বক্তব্য শোনা গেল বিজেপির অন্যতম সর্বভারতীয় সম্পাদক তথা পশ্চিমবাংলার ভারপ্রাপ্ত সহনেতা সুরেশ পূজারীর গলায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে এই বিজেপি নেতা বলেন, “কাউকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী করে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে লড়ার কথা বিজেপি তার চিন্তাতেই আনছে না। হরিয়ানার কে মুখ্যমন্ত্রী হবে, তা কি আগে থেকে জানা গিয়েছিল! উত্তরপ্রদেশে কে মুখ্যমন্ত্রী হবে, তা কি বিজেপি নির্বাচনের আগেই ঠিক করেছিল! নির্বাচনী প্রস্তুতির জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর খোঁজ করার প্রয়োজন বিজেপিতে হয় না।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, লোকসভা নির্বাচনের পর বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে মুখ করেই ভবিষ্যতে বাংলায় বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি এগোতে পারে, এমন ধারণা বিজেপির একাংশ করলেও ক্ষমতার স্বাদ যাতে তাদের মধ্যে এখন থেকেই চলে না আসে, তার জন্যই এই ধরনের বক্তব্য দিয়ে আগে থেকে বিজেপি দলের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে হবেন, তা ঠিক হয় না বলে জানিয়ে দিলেন সুরেশ পূজারী।

পাশাপাশি দিলীপ ঘোষকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে দলের অন্দরে বিভিন্ন ব্যক্তি মনে করলেও তা নিয়ে যাতে দলে কোনোরূপ গোষ্ঠী কোন্দলও না বাঁধে, তার জন্য আগাম সেই সমস্ত জল্পনাকে কার্যত দমিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেন বিজেপির এই কেন্দ্রীয় নেতা বলে মত বিশ্লেষকদের।

এদিকে এদিন সুরেশ পূজারী আরও বলেন, “পশ্চিমবাংলায় আপাতত আমরা সংগঠনকে শক্তিশালী করার কাজে হাত দিয়েছি। আর সেই মতই রাজনৈতিক কৌশল গ্রহণ করা হচ্ছে।” অর্থাৎ সুরেশ পূজারী বোঝাতে চাইলেন এখন তাদের কাছে মূল উদ্দেশ্য বাংলার সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করা। আর তাই সেখানে কে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হবে, তা তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়।

তবে সুরেশ পূজারী এই ধরনের মন্তব্য করলেও যখন তাদের বিরোধী শক্তি তথা রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুখ করে বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে, ঠিক তখনই বিরোধীরা যদি কোনো মুখ না দেয়, তাহলে তো সেক্ষেত্রে শাসকদলের পক্ষ থেকে তাদের নানা সময়ে এই ইস্যুতে কটাক্ষ করা হবে!

সমালোচক মহলের একাংশের মতে, আসলে হয়ত বা আগে থেকেই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী নাম ঘোষণা করে ভবিষ্যতে বিধানসভা নির্বাচনে যদি বিজেপিকে হেরে যেতে হয়, তাহলে তাদের প্রেস্টিজ অনেকটাই বিপাকে পড়বে। আর তাই আগেভাগে সেই ব্যাপারে কোনো রিস্ক না নিয়ে এখন সংগঠনকে শক্তিশালী করার কাজ করতে চাইছে তারা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!