এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > কালিয়াগঞ্জ উপনির্বাচন – কে হতে চলেছেন বিজেপি প্রার্থী? একাধিক নাম নিয়ে জল্পনা

কালিয়াগঞ্জ উপনির্বাচন – কে হতে চলেছেন বিজেপি প্রার্থী? একাধিক নাম নিয়ে জল্পনা

বাম সমর্থিত কংগ্রেসের কালিয়াগঞ্জের বিধায়ক প্রমথনাথ রায়ের অকালপ্রয়ানে সেখানে হতে চলেছে উপনির্বাচন। নির্বাচন কমিশন আগামী ২৫ নভেম্বর উত্তর দিনাজপুর জেলার এই বিধানসভা আসনে উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা করেছে। আর তারপরেই চূড়ান্ত তৎপরতা শুরু হয়ে গেছে সংশ্লিষ্ট সব রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে।

২০১৬ সালের নির্বাচনে এই আসনে কংগ্রেস প্রার্থী জিতলেও, কড়া টক্কর দিয়েছিলেন তৃণমূল প্রার্থী। আবার সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে এখানে দুর্দান্ত ফলাফল করেছিলেনবিজেপি প্রার্থী। ফলে, আসন্ন উপনির্বাচনে এখানে কে জিতবে – তা নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল জল্পনা। তবে, যেহেতু এখানে শেষ নির্বাচনে বিজেপির ফলাফল ভালো, তাই বিজেপির টিকিট পেতে আগ্রহ তুঙ্গে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এই বিধানসভা আসনের জন্য বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব তিনটি নাম বেছে নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে পাঠিয়ে দেবে। সেখান থেকে চূড়ান্ত সিলমোহর পড়বে একটি নামে। তবে, কে হতে চলেছেন বিজেপির প্রার্থী? বিজেপির অন্দরমহলে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে – কালিয়াগঞ্জে প্রার্থী হতে চেয়ে লড়াই হতে চলেছে ৭ জনের মধ্যে।

তবে যা জানা যাচ্ছে, লড়াই জোরদার ৫ হেভিওয়েটের মধ্যে। এরমধ্যে সবথেকে এগিয়ে গত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী হওয়া রূপক রায় – এলাকায় ভালো পরিচিতি আছে বলে জানা যাচ্ছে। জেলা পরিষদে বিজেপির একমাত্র সদস্য কমল সরকারও খুব একটা পিছিয়ে নেই অবশ্য। অন্যদিকে, জোরদারভাবে ভেসে উঠছে যুব মোর্চার রাজ্য কমিটিতে থাকা গৌরাঙ্গ দাসের নাম।

এছাড়াও নাম ভেসে উঠছে ভবানী সিংহ ও গৌতম বিশ্বাসের। এই নিয়ে বিজেপির জেলা সভাপতি নির্মল দাম সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, উপনির্বাচন নিয়ে আমরা অনেক আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। বুথ স্তর থেকে সাংগঠনিক কাজ সমস্ত করে রেখেছি। প্রার্থী হতে চেয়ে সাত জন আবেদন করেছেন। এগুলি এদিনই রাজ্য নেতৃত্বের কাছে পাঠিয়ে দেব। রাজ্য নেতৃত্বই প্রার্থী ঠিক করবে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!